যেসব খাবার উচ্চ রক্তচাপের জন‌্য দায়ী

High BP Food
  1. লবণ
    লবণ উচ্চরক্তচাপের জন‌্য দায়ী। আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশন এর মতে দৈনিক লবণ গ্রহণের সহনীয় মাত্রা 1500 মিলিগ্রাম। ভারতীয় উপমহাদেশের খাবারে বিশেষ করে বাঙালি খাবারে লবণের ব‌্যবহার বেশী । কেউ কেউ পাতে কাঁচা লবণ খান যা একেবারে বর্জনীয়। সুতরাং খাবারে লবণ যতটা সম্ভব কম মেশানো উচিৎ । সুতরাং লবণ খাওয়ার আগে জানা দরকার লবণ বন্ধু না শত্রু
  2. চিনি
    চিনি বা চিনি মেশানো কোমল পানীয় বা বেকারি ফুড প্রভৃতি ওজন বৃদ্ধি এবং মুটিয়ে যাওয়া বা অবেসিটির জন‌্য দায়ী। আর অস্বাভাবিক ওজন উচ্চ রক্তচাপ তৈরিতে ভুমিকা রাখে। তবে লালচিনি সাদা চিনির চেয়ে ভাল।
  3. কফি
    কফি বা যেকোনে ক‌্যাফেইন মেশানো ড্রিংস রক্তচাপ বাড়ায়। নিয়মিত কফি পানে যা উচ্চ রক্তচাপ তৈরি করে। তাই নিয়মিত কফি পান না করাই ভাল।
  4. অ‌্যালকোহল
    আ‌্যালকোহল অধিক মাত্রায় সেবন করলে উচ্চ রক্তচাপ তৈরি হয়। এছাড়া এটি সেবনের সাথে ওজন বৃদ্ধিরও সম্পর্ক আছে। তাই অ‌্যালকোহল অবশ‌্যই বর্জনীয়।
  5. লাল মাংস
    লাল মাংসে প্রচুর কোলেস্টরল থাকে যা রক্তনালীর গায়ে বিশেষ করে ধমনীতে জমে রক্ত চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। এটি মূলত হার্টের সবচেয়ে বড় শত্র হিসেবে চিহ্নিত।
  6. প্রক্রিয়াজাত টমাটো সস
    টমাটো সস প্রক্রিয়াজাতকরণে যে রাসায়নিকগুলো ব‌্যবহৃত হয় যেমন লবণ তার সবগুলো প্রায় স্বাস্থ‌্যের জন‌্য ঝুকিপুর্ণ। এগুলো উচ্চরক্তচাপের জন‌্য দায়ী।
  7. প্রক্রিয়াজাত খাবার
    শুধু টমাটো সস নয় প্রক্রিয়াজাত খাবারেই উচ্চ রক্তচাপের জন‌্য দায়ী উপাদান রয়েছে। যাদের ‍উচ্চ রক্তচাপের সমস‌্যা বা ঝুকি রয়েছে তাদের উচিত হোমমেড বা ঘরে রান্না করা খাবার খাওয়া। -সমাপ্ত-
  1. পোস্টটি ভাল লাগলে ফেসবুক বা টুইটারে শেয়ার করুন ও লাইক দিন
পরবর্তী পোস্ট

মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতে শরীরচর্চা বা ব্যায়াম কতটা দরকারি?


জেনে নিন আপনি যে অভ্যাসগুলোর কারণে কিডনি রোগে আক্রান্ত হতে পারেন

কিডনি নষ্ট হওয়ার কারণ
কিডনি রোগ যদি প্রাথমিকভাবে ধরা পড়ে তাহলে খাদ্যাভ্যাস ও জীবনধারন মেনে চললে কিডনিকে স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়ে আসা সম্ভব। এবিষয়ে একজন ডায়েটিশিয়ানের পরামর্শ কিডনির সুস্থতায় দারুন ভুমিকা পালন করতে পারে। কিডনি ফাউন্ডেশনের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশে প্রায় ২ কোটি মানুষ...
বিস্তারিত

পবিত্র রমজান মাসের সংযম ও পুষ্টি

রোজায়  স্বাস্থ্য টিপস
ভোরের সেহরিতে শুরু আর সন্ধ্যার ইফতারিতে শেষ। রোজাদারের আনন্দ নাকি ইফতারিতে, যদিও রোজাদারের জন্য আরোও অনেক উপহার আছে। ...
বিস্তারিত

ডিপ্রেশনের সাইকোলজিক্যাল কারণ

ডিপ্রেশন কিভাবে হয়
ডিপ্রেশনের কগনিটিভ থিউরি অনুযায়ী, ডিপ্রেশনের জন্য দায়ী কগনিটিভ ডিসটরশন বা চিন্তার বিচ্যুতি। আমরেকিান সাইকিয়াটিষ্ট Aron T Beck কগনিটিভ ডিসটরশন নিয়ে প্রথম কাজ করেন। কগনিটিভ ডিসটরশনের কারনে ব্যাক্তি ব্যাস্তবতাকে ভূলভাবে বুঝতে পারেন।...
বিস্তারিত