Royalbangla
ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

স্বামী স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ এক হলে বাচ্চা নিতে কোন সমস্যা হবে?

মেয়েলি সমস্যা

গর্ভবতী মায়ের রক্তের গ্রুপ নেগেটিভ, স্বামী পজিটিভ কি সমস্যা হবে?

প্রতিনিয়ত আমাদের এই ধরণের প্রশ্নের মূখোমূখি হতে হয়। সাধারণ মানুষজনের মাঝে একটি ভ্রান্ত ধারণা আছে যে স্বামী ও স্ত্রীর রক্ত যদি একই গ্রূপের হয় তবে এই দম্পতির সন্তান জন্মদানে সমস্যা হবে। যারা এই ধরণের ভ্রান্ত ধারণা পোষণ করেন আজকের লিখনী বিশেষত তাদের জন্য।

রক্তের গ্রূপ পজিটিভ হবে নাকি নেগেটিভ হবে তা নির্ভর করছে আপনার রক্তের লোহিত কনিকায় Rh অ্যান্টিজেন আছে কি নাই তার উপর। Rh অ্যান্টিজেন হল এক বিশেষ ধরণের প্রোটিন যা রক্তের লোহিত কনিকায় বিদ্যমান। যদি Rh অ্যান্টিজেন থাকে তবে আপনার রক্তের গ্রূপ হবে পসিটিভ আর যদি রক্তের গ্রূপ নেগেটিভ হয় তাহলে বুঝতে হবে আপনার লোহিত কনিকায় Rh অ্যান্টিজেন নাই।

স্বামী ও স্ত্রীর রক্ত একই গ্রূপের হলে গর্ভধারণ করতে কোনও সমস্যা হয় না। কিন্তু যদি স্বামীর রক্তের গ্রূপ পজি টিভ আর স্ত্রীর রক্তের গ্রূপ নেগেটিভ হয় সেক্ষেত্রে কখনও কখনও গর্ভধারণে সমস্যা হয়। আবার ক্ষেত্র বিশেষে গর্ভধারণে কোন সমস্যা না হলেও গর্ভধারণের কিছু সময় পরই গর্ভপাতের আশঙ্কা তৈরি হয়। এ কারণে যখনই নেগেটিভ রক্তের গ্রূপের কোন গর্ভবতী মা আমাদের কাছে আসেন আমরা তার স্বামীর রক্তের গ্রূপ পসিটিভ নাকি নেগেটিভ তা চেক করতে দেই। উদ্দেশ্য হল সুস্থ গর্ভাবস্থা। স্বামী-স্ত্রী দুজনই যদি নেগেটিভ গ্রূপের হন তাতেও কোন সমস্যা হবে না।

পজি টিভ স্বামী ও নেগেটিভ স্ত্রীর প্রথম সন্তান যদি নেগেটিভ গ্রূপের হয় তাহলে কোনও প্রকার সমস্যা হয় না। বিপত্তি হয় তখন যদি প্রথম সন্তান বাবার রক্তের গ্রূপ পায় অর্থাৎ যদি পসিটিভ হয়। এই পসিটিভ রক্তের গ্রূপের গর্ভাবস্থায় সাধারণত কোন ঝামেলা হয় না। তবে এই সন্তান জন্মের সময় বাচ্চার পসিটিভ রক্ত নেগেটিভ মায়ের রক্তের সাথে মিশে যায় যা গর্ভাবস্থায় দুরুহ, যদিও ০.১% ক্ষেত্রে রক্তের এই মিশ্রণ গর্ভাবস্থায়ও হতে পারে। মায়ের নেগেটিভ রক্তের সহিত বাচ্চার পজি টিভ রক্তের এই মিশ্রণের কারণে মায়ের রক্তে এক ধরণের Antibody তৈরি হয়ে থাকে যা পরবর্তী গর্ভাবস্থাকে ঝুঁকিতে ফেলে। পরবর্তী গর্ভাবস্থার বাচ্চাটি যদি আবার ও পসিটিভ গ্রূপের হয় তবে এই Antibody দ্বিতীয় বাচ্চাটিকে নষ্ট করে দেয়। এ কারনেই প্রথম পসিটিভ সন্তান জন্মের পর পরই ৭২ ঘণ্টার মধ্যে Rh Anti-D antibody নামক একটি প্রতিরোধক ইঞ্জেকশান মাকে দিতে হবে। এই প্রতিরোধক ইঞ্জেকশান মায়ের শরীরে বিদ্যমান বাচ্চার লোহিত রক্তকণিকাকে ধ্বংস করে দেয় এবং কোনও ধরণের Antibody তৈরি হতে দেয় না। ফলে পরবর্তী বাচ্চা পজি টিভ হলেও কোনও সমস্যা হয় না।

তবে নেগেটিভ মায়ের পজি টিভ বাচ্চা ডেলিভারির পর যদি Rh Anti-D antibody নামক একটি প্রতিরোধক ইঞ্জেকশান মাকে না দেয়া হয় তবে পরবর্তী পসিটিভ বাচ্চা জন্মগতভাবে রক্তশূন্যতা, জন্ডিস নিয়ে জন্মগ্রহণ করতে পারে, এমন কি গর্ভে সন্তান মারাও যেতে পারে। জন্মগত রক্তশূন্যতা ও জন্ডিস নিয়ে যে বাচ্চারা জন্ম নেয় তাদের অবশ্যই বাচ্চাদের আই সি ইউ তে ভর্তি করতে হয় এবং বাচ্চাদের শরীরের পসিটিভ রক্ত একই গ্রূপের নেগেটিভ গ্রূপ দিয়ে অথবা ও নেগেটিভ রক্ত দিয়ে পুরপুরি বদল করতে হয় যাকে এক্সচেঞ্জ ব্লাড ট্রান্সফিউশন বলে।

সত্যিই মানুষ আল্লাহ তায়ালার মহান সৃষ্টি। কোন কোন নেগেটিভ গ্রূপের মায়ের শরীরের নিজস্ব প্রতিরোধ ক্ষমতার কারণে একাধিক পসিটিভ গ্রূপের সন্তান ও কেউ কেউ জন্ম দিয়ে থাকেন। তাদেরকে আমরা ইমিউনোলজিকেল ননরেসপ্নডার গ্রুপের সদস্য ধরি নেই। এসব বাচ্চার তেমন কোনো সমস্যা হয় না।

এই লেখকের সব লেখা পড়ুন নিচের লিংক থেকে।
www.royalbangla.com/dr.hasnahossain

লেখিকা
ডাঃ হাসনা হোসেন আখী
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য)
এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
ট্রেইন্ড ইন ল্যাপারস্কপি এন্ড ইনফার্টিলিটি স্ত্রী রোগ ও প্রসূতি বিদ্যা বিশেষজ্ঞ এবং ল্যাপারস্কপিক সার্জন।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।
নিয়মিত রোগী দেখছেন: মার্কস কনসালটেশন সেন্টার।
প্রতিদিন : বিকেল ৫ টা হতে রাত ৮ টা পর্যন্ত।
সিরিয়াল :
01729-269437.
সিরাজ মার্কেট (২য় তলা), কচুক্ষেত, ঢাকা-১২০৬। (ফুট ওভার ব্রিজের পাশে)
লেখকের সাথে যোগাযোগ করতে নিচের ফেসবুক পেইজে ক্লিক করুন
www.facebook.com/dr.hasnahossain

  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

দুধ খাওয়া কেন প্রয়োজন? দৈনিক কতটুকু দুধ পান করা উচিত?


সুস্থ এবং ফিট থাকতে একজন নারী প্রাত্যহিক জীবনে যে রুটিন মেনে চলবেন

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু
একজন নারী যিনি কর্মজীবী হোন কিংবা গৃহিণী, সকাল থেকে রাত অবধি প্রচন্ড ব্যস্ত সময় পার করেন। সারাদিনের ব্যস্ততায় নিজের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে গিয়ে অনেকেই নিজের প্রতি খেয়াল রাখার সময় পান না।.......
বিস্তারিত

ছেলে না মেয়ে হবে

ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা),Consultant Sonologist
আপনার ছেলে না মেয়ে হবে এটি আসলে পুরোপুরি সৃষ্টি কর্তার হাতে। এখানে আমরা চাইলেও কিছুই করতে পারি না। তবে ছেলে না মেয়ে হবে তাতে বাবা মায়ের কি কোন ভূমিকা নাই?......
বিস্তারিত

১ চামচ তেলে ডিম কারি রেসিপি (ভিডিও)

পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
১ চামচ তেলে ডিম কারি রেসিপি । Diet-Friendly & Healthy Egg Recipe | Simple Egg Recipe For Everyone.....
বিস্তারিত

ডায়েটে রাখুন ছোট মাছ

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু
ক্যালসিয়াম একটি খনিজ উপাদান যেটা মানব শরীরের জন্য অতি প্রয়োজনীয় খনিজ উপাদানের মধ্যে অন্যতম। আমাদের শরীরের কাঠামো তৈরি হয় হাড়ের মাধ্যমে আর এই হাড় মজবুত এবং শক্ত রাখতে সাহায্য করে থাকে ক্যালসিয়াম।...
বিস্তারিত

গর্ভাবস্থায় মুখের সমস্যা ও তার প্রতিকার :

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
গর্ভাবস্থায় আপনাকে অনেক কিছুই ভাবতে হয়, তখন মুখের স্বাস্থ্যের কথা ভুলে গেলে চলবে না।হরমোনগত পরিবর্তনের কারনে শরীরের বিভিন্ন অংশেরসাথে তাল মিলিয়ে আমাদের মুখ গহবরের গঠনগত কিছুপরিবর্তন আসে।.....
বিস্তারিত

লোফ্যাট (সেমি-স্কিমড)/ ননফ্যাট (স্কিমড)/ স্বল্পননীযুক্ত দুধ এসব আসলে কি?

পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
দুধ আদর্শ খাদ্য, তাই নিয়মিত সবারই দুধ পান করা উচিত (যাদের ইন্টলারেন্স নাই)। আর ওজন কমাতে ফ্যাটফ্রি বা লোফ্যাট মিল্ক খাওয়া জরুরি। কিন্তু অনেকেই গরুর দুধকে নিজে নিজে লো ফ্যাট বানাতে গিয়ে কিছু ভুল করে ফেলেন ৷.....
বিস্তারিত

অ্যামনিওটিক ফ্লুইড কি এবং এর প্রয়োজনীয়তা কি?

ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা),Consultant Sonologist
প্রেগ্ন্যান্সি রিলেটেড আল্ট্রাসনোগ্রামের রিপোর্টে আমরা AFI / SDP এর মিজারমেন্ট দিয়ে থাকি। এটি অ্যামনিওটিক তরলের পরিমান বুঝাতে ব্যবহৃত হয়।....
বিস্তারিত

শালগম এর উপকারীতা

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
শালগম অত্যন্ত পুষ্টিকর খাদ্য হিসেবে সুপরিচিত। ভিটামিন এ, সি এবং ভিটামিন কে তে ভরপুর থাকে শালগম। শালগমের সবচাইতে ভালো দিক হচ্ছে এদের ক্যালরি খুব কম থাকে। নিয়মিত শালগম খাওয়ার কিছু কারণ সম্পর্কে জেনে নিই চলুন।........
বিস্তারিত

মৌসুমি ডিপ্রেশন মোকাবিলায় কতখানি প্রস্তুত!!

জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
এই সময়ে শীত বাড়ার সাথে সাথে দিনের আলো কমতে শুরু করেছে এবং বাইরে সবকিছু শীতল হয়ে যাচ্ছে। বেশিরভাগ মানুষ ঘর থেকে বের হতে চান না এবং বাইরে কম বের হবার কারণে অনেকেই ডিপ্রেশনের মতো লক্ষণগুলির মুখোমুখি হতে পারেন।....
বিস্তারিত

No Junk Food for Child- বাচ্চাকে যে কারণে জাঙ্কফুড খাওয়া বারণ

নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,
বাচ্চা পছন্দ করে বলে তাকে বার্গার কোক পিজ্জা ফাস্টফুড প্রায় দিতে হবে কেনো? বাচ্চা যদি বিষ পছন্দ করে তাহলে কি দিতে পারবেন?.....
বিস্তারিত

এক্টোপিক গর্ভাবস্থা - কারণ, লক্ষণ, এবং চিকিত্সা

ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
গর্ভাবস্থা একটি মহিলার জন্য সবচেয়ে সুন্দর অভিজ্ঞতাগুলির একটি । মা হওয়ার উপহারটি বিহ্বলকারী এবং আপনার ও আপনার সঙ্গীর অভীষ্ট । যাইহোক, সব গর্ভাবস্থা স্বাভাবিক হতে পারে না, এবং কিছুকে আগেই শেষ......
বিস্তারিত

ফাস্টফুডকে না বলুন

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু
যেকোন প্যাকেটজাত খাবার এবং ফাস্টফুড আইটেমে প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত ফ্যাট এবং চিনি থাকে এবং দীর্ঘদিন ধরে এ ধরনের খাবার গ্রহণের ফলে স্বাস্থ্য-ঝুঁকি বেড়ে যায় বহুগুণ।....
বিস্তারিত

সুপারবাগ: মানবজাতির জন্য কতটা ভয়ংকর?


ডাঃ গুলজার হোসেন ,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট

আত্মহত্যা প্রতিরোধে আমাদের যা করা উচিত


ডা. ফাতেমা জোহরা , মনোরোগ, যৌনরোগ ও মাদকাসক্তি নিরাময় বিশেষজ্ঞ

গর্ভধারণ এবং স্তন ক্যান্সার পর্ব ১


ডাঃ লায়লা শিরিন,অধ্যাপক, ক্যান্সার সার্জারী, জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল।

ইউরিক এসিড জনিত সমস্যায় কি করণীয় জেনে নিন


ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন,হৃদরোগ, বাতজ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ রোগ বিশেষজ্ঞ

হাইপোথাইরয়েডিজম (Hypothyroidism)- গর্ভবতী মা ও অনাগত শিশুর উপর এর প্রভাব


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,,Consultant Sonologist

ডায়াবেটিস: প্রতিকার ও প্রতিরোধ


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন।বিএসসি (সম্মান), এমএসসি (প্রথম শ্রেণী) (ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি)

রাগ প্রকাশের গ্রহনযোগ্য উপায়।


জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট,বি-এস.সি (অনার্স), সাইকোলজি,পিজিটি (সাইকোথেরাপি),এম.এস ও এম.ফিল

নতুন দম্পতিরা জন্মনিয়ন্ত্রণ করবেন কিভাবে?


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

রক্তের অসুখ পলিসাইথেমিয়া


ডাঃ গুলজার হোসেন ,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট

ভ্যারিকোসিল কি? কাদের হয়? কি করণীয়?


ডাঃ মোঃ মাজেদুল ইসলাম,এমবিবিএস, এফসিপিএস (সার্জারি),জেনারেল, কোলোরেক্টাল এবং ল্যাপারোস্কোপিক সার্জন।

দাঁত ব্রাশের সময় যে ৭টি ভুল করি আমরা


ডা: এস.এম.ছাদিক,বি ডি এস (ডি ইউ),এম পি এইচ (অন কোর্স)

হার্ট এটাক সম্পর্কে যেসব তথ্য সবার জানা দরকার


ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন

মহিলারা কখন কয়টি টিটি টিকা নিবেন?


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,,Consultant Sonologist

জরায়ুর মুখে ক্যান্সার


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

ক্যান্সার ম্যানেজমেন্ট: ক্যান্সার রোগীদের জন্য জরুরি টিপস


ডাঃ লায়লা শিরিন

বাবার জন্য সন্তানের রক্ত কতটুকু নিরাপদ?


ডাঃ গুলজার হোসেন,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল

আপনি জানেন কী, কোন খাবারগুলোর সাথে আপনার শরীরের অঙ্গের মিল রয়েছে?


নুসরাত জাহান, ডায়েট কনসালটেন্ট

কিভাবে ধূমপান ছাড়বেন?


জিয়ানুর কবির

সুস্থ সুন্দর সন্তান জম্মদানের জন্য আপনার করণীয়


ডাঃ আয়েশা রাইসুল

বাচ্চা কেন হেলদি হচ্ছে না


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন

পজিটিভ প্যারেন্টিং


জিয়ানুর কবির

পানি পানের সঠিক নিয়ম


নুসরাত জাহান, ডায়েট কনসালটেন্ট

গর্ভকালীন কোষ্ঠকাঠিন্য কেন হয়? এবং মুক্তির উপায় কী ?


ডাঃ মোঃ আশেক মাহমুদ ফেরদৌস

ডিম নিয়ে যত প্রশ্ন.....???


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী