Royalbangla
ডাঃ গুলজার হোসেন ,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট
ডাঃ গুলজার হোসেন ,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট

সিএমএল বা ক্রনিক মায়েলয়েড লিউকেমিয়া কি? করণীয় কি?

টিপস

সিএমএল হলো রক্তের একধরণের ক্যান্সার বা এক প্রকারের লিউকেমিয়া। এর পুরো নাম ক্রনিক মায়েলয়েড লিউকেমিয়া। লিউকেমিয়া বা ব্লাড ক্যান্সার হলেও এটা অন্যসব লিউকেমিয়ার তুলনায় অনেকটাই ভাল। কারণ এটি সহজে নিয়ন্ত্রণযোগ্য। ক্ষেত্র বিশেষে নিরাময় যোগ্যও বটে। সিএমএল এর অধিকাংশ রোগীরাই নিয়মিত চিকিৎসকের তত্ত্বাবধায়নে থাকলে এবং নিয়ম করে ওষুধ খেলে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারে। সেটা কেন হয় তা বলা কঠিন। রেডিয়েশন থেকে হয়। আরো অন্যান্য ট্রিগারিং এজেন্টও আছে।

যা বলছিলাম ৯ নং ক্রোমজোমে এ থাকে ABL1 জিন। ২২ শে থাকে BCR জিন। ABL1 একটি ক্যান্সার উদ্দীপক জিন। কিন্তু সে স্বাভাবিক অবস্থায় সুপ্ত থাকে। BCR এর সান্নিধ্যে এসে ABL1 সক্রিয় হয়ে উঠে। BCR-ABL ফিউশন প্রোটিন শ্বেত রক্ত কোষের বিভাজনকে উদ্দীপিত করে। ফলে শুরু হয় অনিয়ন্ত্রিত কোষ বিভাজন। সিএমএল এর চিকিৎসা আবিষ্কার ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য একটি যুগান্তকারী ঘটনা। মানুষ যে একদিন ক্যান্সার রোগটিকে মামুলি ব্যাপার বানিয়ে ফেলতে পারে তার একটি নমুনা দেখা যায় এই সিএমএল এর চিকিৎসা আবিষ্কারের ঘটনার ভেতর দিয়ে। ইমাটিনিব নামক এক ধরণের ওষুধ এই BCR-ABL ফিউশন জিনকে নিষ্ক্রিয় করে রাখতে পারে। বিশেষ জিনকে লক্ষ্য করে এরা কাজ করতে পারে বলে একে বলা হয় টারগেটেড থেরাপি। বাংলায় করলে দাঁড়ায় লক্ষ্যভেদী চিকিৎসা। একসময় সিএমএল এর চিকিৎসায় বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট ছিল মূল চিকিৎসা। টারগেটেড থেরাপি আসার পর সিএমএল এর চিকিৎসায় বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টেশন প্রায় নির্বাসিত হয়েছে। ইমাটিনিবের পর একই গোত্রের আরো কিছু ওষুধ বাজারে এসেছে।

ইমাটিনিবের আবিষ্কার পুরো ক্যান্সার চিকিৎসায় আলোড়ন সৃষ্টি করে। ক্যান্সার যুদ্ধে নতুন অস্ত্র হিসেবে একে চিহ্নিত করে টাইমস ম্যাগাজিনের এক আর্টিকেলে। একে তখন নাম দেওয়া হয় 'ম্যাজিক বুলেট।'

ইমাটিনিব প্রথম যখন বাংলাদেশে আসে তখন সিএমএলএর দৈনিক চিকিৎসা ব্যয় ছিল গড়ে ২ হাজার টাকার মত। এখন বাংলাদেশি ওষুধ কোম্পানিগুলো দেশেই এই ওষুধ তৈরি করে যার একেকটির দাম পড়ে ২৫০ - ৩৫০ টাকা। অর্থাৎ দৈনিক খরচ তিনশ থেকে চারশ টাকার ভেতর।

এই একটি মুখে খাওয়ার ওষুধেই রোগ নিয়ন্ত্রণে থাকতে পারে এবং রোগী সুস্থ মানু্ষের মত সাধারণ জীবনযাপন করতে পারে। আমাদের দেশে রোগীরা যখন জানতে পারে তার সিএমএল বা ক্রনিক মাইলয়েড লিউকেমিয়া হয়েছে তখন স্বাভাবিকভাবেই তারা দিশেহারা হয়ে উঠে।পুরো ট্রিটমেন্ট প্রক্রিয়া বুঝিয়ে বলার পরও আরো ভাল কিছু পাবার আশায় যাদের সামর্থ আছে বিদেশে পাড়ি দেন।

সমস্যা হয় তাদের ক্ষেত্রে যারা সামর্থের হিসাবটা করতে পারেননা। বিদেশ টিদেশ ঘুরে আসার পর যখন দেখেন তাদেরকে টারগেটেড থেরাপি মানে দৈনিক ইমাটিনিব বা এ জাতীয় ওষুধ খাবার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে তারা তখন সেই ওষুধটিও কিনবার সামর্থটি হারায়।

এই লেখকের সব লেখা পড়ুন নিচের লিংক থেকে।
www.royalbangla.com/gulzarhematologist

লেখক
ডাঃ গুলজার হোসেন
বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট
জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল
চেম্বারঃ
বি আর বি হাসপাতাল পান্থপথ, ঢাকা।
লেখকের সাথে যোগাযোগ করতে নিচের ফেসবুক পেইজে ক্লিক করুন
www.facebook.com/gulzarhematologist

  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

জেনে নিন থাইরয়েড সমস্যায় ওষুধ খাওয়ার সঠিক নিয়ম


.

আপনি কি নিজের অজান্তে আয়রন এর অভাবে ভুগছেন ?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

থ‌্যালাসেমিয়া কি ? কেন হয় ?


ডাঃ সাঈদ সুজন
.

রক্ত কখন কেন কিভাবে দিবেন?


ডাঃ সাঈদ সুজন
.

রক্তদানের ১০টি উপকারিতা যা জানলে আপনি অবাক হবেন


ডা ফাতেমা জোহরা
.

রক্তশূণ্যতা কী? কারণ, লক্ষণ ও প্রতিকার।


ডাঃ গুলজার হোসেন
.

প্রসংগ:ব্লাড ক্যান্সার-প্রাথমিক ধারনা ও করণীয়


ডাঃ গুলজার হোসেন
.

রক্তদান ও রক্তপরিসঞ্চালন নিয়ে কিছু কথা


ডাঃ গুলজার হোসেন
.

ডেংগি ও প্লেইটলেট(ডেংগু নিয়ে কিছু ভ্রান্ত আতঙ্ক)


ডাঃ গুলজার হোসেন
.

আসুন থ্যালাসেমিয়াকে জানি


ডাঃ গুলজার হোসেন
.

বাবার জন্য সন্তানের রক্ত কতটুকু নিরাপদ?


ডাঃ গুলজার হোসেন,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল

আক্কেল দাঁত কখন এবং কেন ফেলতে হয়?

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
সাধারণত আক্কেল দাঁত সম্পূর্ণভাবে উঠার সময় হলো ১৭-২৫ বছর বয়স । কিন্তু ১৭-২০ বছর বয়সের মধ্যেই বুঝা যায় আক্কেল দাঁত সঠিকভাবে উঠবে কি না।....
বিস্তারিত

শালগম এর উপকারীতা

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
শালগম অত্যন্ত পুষ্টিকর খাদ্য হিসেবে সুপরিচিত। ভিটামিন এ, সি এবং ভিটামিন কে তে ভরপুর থাকে শালগম। শালগমের সবচাইতে ভালো দিক হচ্ছে এদের ক্যালরি খুব কম থাকে। নিয়মিত শালগম খাওয়ার কিছু কারণ সম্পর্কে জেনে নিই চলুন।........
বিস্তারিত

সাইনাস আর সাইনুসাইটিস, আসুন সহজে বুঝে নিই.

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
স্বাভাবিক নিশ্বাস নিতে মনে হয় নাকে কি যেনো আটকে আছে,, আবার নাক দিয়ে পানিও পড়ে। গায়ে হালকা জ্বর ও আছে, আবার সাথে মাথা ব্যাথা। তিনি ডাক্তারের কাছে গেলেন, ডাক্তার বললেন, আপনার সাইনুসাইটিস হয়েছে,........
বিস্তারিত

গর্ভাবস্থায় কি চা-কফি পান করা যায়?

ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,Consultant Sonologist
চা ও কফি আপনাদের অনেকেরই প্রছন্দের পানীয়। তাই গর্ভাবস্থায়ও খেতে চান, তাই না? এ ক্ষেত্রে আমাদের জানা উচিত এই পানীয় পান করা যাবে কি না, গেলে কতটুকু করা যাবে।......
বিস্তারিত

বাচ্চাদের ফল ও সবজি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলবেন কিভাবে?


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন।বিএসসি (সম্মান), এমএসসি (প্রথম শ্রেণী) (ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি)

মহিলাদের ইনফার্টিলিটি দূর করার ক্ষেত্রে ডিম্বাণুর গুণাগুণ কেন গুরুত্বপূর্ণ?


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

কিডনী সিস্ট কতটা ঝুঁকিপূর্ণ ?


ডাঃ মোহাম্মদ ইব্রাহিম আলী,এম.বি.এস,বিসিএস (স্বাস্থ্য) ,এমএস (ইউরোলজি)

শিশুদের ডায়েট কেমন হওয়া উচিত ?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)

লিভারের সুস্থতায় কি করবেন?


নুসরাত জাহান, ডায়েট কনসালটেন্ট

অনিয়মিত পিরিয়ডের কারণ , চিকিৎসা ও ঘরোয়া প্রতিকার


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী