যেসব খাবার হৃদরোগের জন‌্য দায়ী

Bad Food for Heart
হার্টের সবচেয়ে বড় শত্রূ কিছু খাবার । এ খাবারগুলো এড়িয়ে চলা খুবই প্রয়োজন। বিশেষ করে ত্রিশ বছরের বেশী বয়স হলেই এ খাবারগুলো এড়িয়ে চলা উচিত।

  1. কোমল পানীয় বা সফট ড্রিংকস
    কোমল পানীয় তে থাকে এ‌্যাডেড সুগার যা শরীর মুটিয়ে যাওয়ার জন‌্য দায়ী। এ‌্যামেরিকানদের মধ‌্যে গবেষণায় দেখা যেছে তারা যে অতিরিক্ত ক‌্যালরি গ্রহণ করে তা তাদের খাবার থেকে নয় বরং বেভারেজ বা পানীয় থেকে আসে।
  2. কেক বা বিস্কিট বা পেস্ট্রি
    কেক বা বিস্কিট বা পেস্ট্রিতেও থাকে এ‌্যাডেড সুগার যা শরীর মুটিয়ে যাওয়ার জন‌্য দায়ী। এ‌্যাডেড সুগার ছাড়াও এগুলোতে কৃত্রিম ননী থাকে যেগুলো হার্টের ক্ষতি করে।
  3. চকোলেট বা ক‌্যান্ডি
    চকোলেট বা ক‌্যান্ডি রক্তের সুগার লেভেল বাড়িয়ে দেয়। এগুলো খুবই ক‌্যালরি সমৃদ্ধ এবং এতে ক্ষতিকারক নানা রঙও মেশানো থাকে।
  4. আইসক্রিম
    আইসক্রিমও রক্তের সুগার লেভেল বাড়িয়ে দেয়। এটিও খুবই ক‌্যালরি সমৃদ্ধ এবং এতে নানা ধরনের কৃত্রিম রং মেশানো ননী থাকে যা কোলেস্টরল সমৃদ্ধ।
  5. ডিপ ফ্রাইড লবণ মেশানো খাবার বা জাঙ্ক ফুড
    ডিপ ফ্রাইড লবণ মেশানো খাবার বা জাঙ্ক ফুড মুলত উচ্চ রক্তচাপের জন‌্য দায়ী । ডাঃ দেবী শেঠীর মতে ভারতীয় উপমহাদেশে হার্ট ডিজিজের প্রধান কারণ জাঙ্ক ফুড।
  6. লাল চর্বিযুক্ত মাংস
    এধরনের মাংসে প্রচুর ক্ষতিকারক কোলেস্টরল থাকে যা ধমনীর গায়ে জমে ব্লকের সৃষ্টি করে থাকে। লাল চর্বিযুক্ত মাংস খেয়ে ভারতীয় উপমহাদেশে অনেক লোক হৃদরোগে আক্রান্ত হয়।
  7. ফ্রাইড চিকেন
    এটি একটি জাঙ্ক ফুড এবং এতে ট্রান্সফ‌্যাট তৈরি হয়।
  8. বার্গার
    এতে রয়েছে স‌্যাচুরেটেড ফ‌্যাট যা হার্টের জন‌্য ক্ষতিকর। তাছাড়া এটি একটি জাঙ্ক ফুড যাতে প্রসেসড মিট ব‌্যবহার করা হয়। হার্ট সুস্থ রাখার শর্ত হল প্রসেসড খাবার এড়িয়ে যাওয়া কারণ প্রসেস্ড খাবারে থাকে মূলত উচ্চ ক‌্যালরিযুক্ত প্রসেস্ড সাদা চিনি । এছাড়া প্রসেস্ড খাবারের আরেকটা ক্ষতিকর উপাদান হল অধিক লবণ যা উচ্চ রক্তচাপের জন‌্য দায়ী। সুতরাং হোমমেড খাবার হল সমাধান। ধন‌্যবাদ। --সমাপ্ত-
  1. পোস্টটি ভাল লাগলে ফেসবুক বা টুইটারে শেয়ার করুন ও লাইক দিন
পরবর্তী পোস্ট

মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতে শরীরচর্চা বা ব্যায়াম কতটা দরকারি?


জেনে নিন আপনি যে অভ্যাসগুলোর কারণে কিডনি রোগে আক্রান্ত হতে পারেন

কিডনি নষ্ট হওয়ার কারণ
কিডনি রোগ যদি প্রাথমিকভাবে ধরা পড়ে তাহলে খাদ্যাভ্যাস ও জীবনধারন মেনে চললে কিডনিকে স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়ে আসা সম্ভব। এবিষয়ে একজন ডায়েটিশিয়ানের পরামর্শ কিডনির সুস্থতায় দারুন ভুমিকা পালন করতে পারে। কিডনি ফাউন্ডেশনের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশে প্রায় ২ কোটি মানুষ...
বিস্তারিত

পবিত্র রমজান মাসের সংযম ও পুষ্টি

রোজায়  স্বাস্থ্য টিপস
ভোরের সেহরিতে শুরু আর সন্ধ্যার ইফতারিতে শেষ। রোজাদারের আনন্দ নাকি ইফতারিতে, যদিও রোজাদারের জন্য আরোও অনেক উপহার আছে। ...
বিস্তারিত

ডিপ্রেশনের সাইকোলজিক্যাল কারণ

ডিপ্রেশন কিভাবে হয়
ডিপ্রেশনের কগনিটিভ থিউরি অনুযায়ী, ডিপ্রেশনের জন্য দায়ী কগনিটিভ ডিসটরশন বা চিন্তার বিচ্যুতি। আমরেকিান সাইকিয়াটিষ্ট Aron T Beck কগনিটিভ ডিসটরশন নিয়ে প্রথম কাজ করেন। কগনিটিভ ডিসটরশনের কারনে ব্যাক্তি ব্যাস্তবতাকে ভূলভাবে বুঝতে পারেন।...
বিস্তারিত