Royalbangla
রয়াল বাংলা ডেস্ক
রয়াল বাংলা ডেস্ক

হাঁটু ও কনুইয়ের কাল দাগ যেভাবে দূর করবেন

দাগ

সৌন্দর্য ও সুস্বাস্থ্যের জন্য শরীরের প্রতিটি অঙ্গের প্রতি যত্নবান হওয়া উচিৎ। সাধারণত হাতের কনুই এবং পায়ের হাঁটু এর ত্বক খুব নমনীয় হয় এবং অধিক রিমানে ভাঁজ থাকার কারণে বেশ কালো ভাব তৈরি হয়। খুব বেশি নজর না যাওয়ার কারণে অস্বাভাবিক মুষড়ে পড়ে এখানকার ত্বক শর্টস বা টিশার্ট পরলে পরে তুলনামুলক দৃষ্টিকটু দেখায় এখানটা। এখনাএ ত্বকের তৈলগ্রন্থি না থাকার কারণে ক্রমাগত অনুজ্জ্বল হয়ে পড়ে।
যে সকল কারণে এ সমস্যা দেখা দেয়-
* হাঁটা চলা বা কাজের সময় বারবার ভাঁজ করা ও কাপড়ের সঙ্গে ঘষা লাগার কারণে
* সুর্যের তাপের প্রভাবে
* বংশগত কারণে
* ত্বকের শুস্কতার ফলে
* হরমোন জনিত কারণে
* মেদ বৃদ্ধির কারণে
* মৃত ত্বক জমা হয়ে
    কনুই ও হাঁটুর কালোদাগ বা অনুজ্জ্বলতা দূর করতে করণীয়
  1. ১। লেবুর রসঃ ভিটামিন সি সমৃদ্ধ লেবু মৃত ত্বক অপসারণ করে, ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় এবং কোষের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে।
    * কনুই ও হাঁটুতে লেবুর রস মেখে ভালো ভাবে মালিশ করতে হবে কয়েক মিনিট। এরপর উষ্ণ পানিতে পরিষ্কার করতে হবে এবং ময়েশ্চারাইজার ক্রিম লাগাতে হবে।
    * ১ টি লেবু চেপে রস বের করে তার মধ্যে ১ চামচ মধু মিশিয়ে আক্রান্ত স্থানে মেখে দিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিতে হবে। এরপর পানি দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।
  2. ২। কাঁচা হলুদঃ চামড়ার টনটনে ভাব ধরে রাখে এবং কালোভাব দূর করে।
    * কাঁচা হলুদের গুঁড়ো ও ঘি একত্রে মিশিয়ে উক্ত স্থানে মালিশ করতে হবে ৫ মিনিট।অতঃপর উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  3. ৩। শসাঃ প্রাকৃতিক ভাবে ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করে এবং আর্দ্রতা বজায় রাখে। * শসা কেটে নিয়ে ঘষে ঘষে রস লাগিয়ে দিতে হবে আক্রান্ত স্থানে ২০ মিনিট ধরে । আরো ৫ মিনিট রেখে দিয়ে তারপর পরিষ্কার করতে হবে ঠান্ডা পানিতে।
    * শসার রস, লেবুর রসের সঙ্গে অল্প পরিমাণ কাঁচা হলুদ মিশিয়ে এই মিশ্রণ হাঁটু ও কনুইতে লাগিয়ে রাখতে হবে ৩০/৪০ মিনিট । তারপর উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  4. ৪। নারিকেল তেলঃ ত্বকের শুষ্ক ভাব দূর করে এবং এর ভিটামিন ই কোষের তারুন্য বাড়ায় ভিতর থেকে।
    * গোসলের পর উক্ত স্থানে টাটকা নারিকেল তেল দিয়ে ১/২ মিনিট মালিশ করতে হবে।
    * নারিকেল তেল ও লেবুর রস একত্রে মিশিয়ে মেখে হাঁটুতে লাগিয়ে রাখতে হবে ১৫/২০ মিনিট। তারপর গরম পানিতে পরিকার করতে হবে।
  5. ৫। চিনিঃ চিনি দিয়ে ঘষে ঘষে ত্বকে জমে থাকা ময়লা ও মৃত চামড়া তুলে ফেলা যায় এবং এটি ত্বকের নমনীয় ভাব ফিরিয়ে আনে।
    * সমপরিমান চিনি ও জলপাই তেল একত্রে মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করতে হবে।
    * ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে আক্রান্ত স্থানে ৫ মিনিট মালিশ করতে হবে।
    * সাবান দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে এরপর এবং দিনে একবার করা যেতে পারে।
  6. ৬। পুদিনা পাতাঃ স্বাস্থ্যকর ত্বুকের জন্য দরকারি উপাদান রয়েছে পুদিনা পাতাতে।
    * ১ কাপ পানিতে এক মুঠো পদিনা পাতা নিয়ে ২/৩ মিনিট সেদ্ধ করতে হবে।
    * অর্ধেক লেবুর রস চেপে মিশ্রণ তৈরি করে তা ঠান্ডা করতে হবে।
    * সুতার কাপড়ে এই মিশ্রণ নিয়ে হাঁটু ও কনুইয়ে মেখে দিতে হবে ভালোভাবে এবং ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলা যেতে পারে ।
  7. ৭। কাজু বাদামঃ ত্বকের কোমলতা ধরে রাখে কাজু বাদামের রস।
    * রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে বাদাম তেল হাতে নিয়ে ৫ মিনিট মালিশ করতে হবে উক্ত স্থান।
    * ১/২ চামচ কাজু বাদামের গুঁড়ো ও দই একত্রে মিশিয়ে গোসলের আগে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে মালিশ করতে হবে। কয়েকদিনের মধ্যেই এ পদ্ধতিতে পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়।
  8. ৮। ঘৃতকাঞ্চন বা অ্যালোভেরাঃ ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ফিরিয়ে আনার প্রকৃতিক উপাদান রয়েছে অ্যালোভেরার রস।
    * অ্যালোভেরার জেল নিয়ে আক্রান্ত স্থানে মেখে ২০ মিনিট অপেক্ষা করে উষ্ণ পানিতে ধুয়ে ফেলতা হবে। দিনে ২ বার এমন করলে দ্রুত উপকার পাওয়া যায়।
  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

জেনে নিন থাইরয়েড সমস্যায় ওষুধ খাওয়ার সঠিক নিয়ম


কেন হাসবো???

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
কর্মব্যস্ত জীবনে আমরা যেন হাসতেই ভুলে গেছি। সারাদিন নিজেদের কাজগুলোই সঠিকভাবে করতে পারিনা, তাহলে হাসি আসবে কোথাথেকে? সকাল ৮ টায় অফিসে বের হই আর বাসায় আসি রাত১০ টায়.....
বিস্তারিত

বাচ্চা কথা বলে না

নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী
দুই বছর আগেও এই অভিযোগ এত শুনিনি।কিন্তু গেলো ৬ মাসে ৯০% আমার পেশেন্ট ই শিশু। এবং এদের ভেতর ৬০ ভাগ ই কথা বলছে না,কম বলছে বা দেরিতে বলছে!....
বিস্তারিত

বিভিন্ন কারণে হৃদপিণ্ডের সমস্যা হলে কী করণীয়?

ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন,হৃদরোগ, বাতজ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ রোগ বিশেষজ্ঞ
হৃদপিণ্ডের রক্তনালির ব্লকজনিত ব্যথা ওপরের পেটে হতে পারে বা গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা ভেবে ভুল হতে পারে। তাছাড়া এ ধরনের ব্যথা শুধু গলার ওপর চাপ চাপ ধরনের হতে পারে, মনে হয় গলায় কিছু আটকে আছে এবং নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসবে।.....
বিস্তারিত

প্রসূতি স্ত্রীর প্রতি স্বামীর করণীয়

ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
স্ত্রীকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাবার দায়িত্ব (কোনো সমস্যা না থাকলে) আপনাকেই নিতে হবে। এতে আপনার স্ত্রী অনুভব করবে, আপনি তাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তৃতীয় বিশ্বের দেশের জন্য পুরো গর্ভকালীন সময় ন্যূনতম চার বার চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাবার বিধান রেখেছে।.......
বিস্তারিত

সাইনাস আর সাইনুসাইটিস, আসুন সহজে বুঝে নিই.

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
স্বাভাবিক নিশ্বাস নিতে মনে হয় নাকে কি যেনো আটকে আছে,, আবার নাক দিয়ে পানিও পড়ে। গায়ে হালকা জ্বর ও আছে, আবার সাথে মাথা ব্যাথা। তিনি ডাক্তারের কাছে গেলেন, ডাক্তার বললেন, আপনার সাইনুসাইটিস হয়েছে,........
বিস্তারিত

গর্ভাবস্থায় কি চা-কফি পান করা যায়?

ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,Consultant Sonologist
চা ও কফি আপনাদের অনেকেরই প্রছন্দের পানীয়। তাই গর্ভাবস্থায়ও খেতে চান, তাই না? এ ক্ষেত্রে আমাদের জানা উচিত এই পানীয় পান করা যাবে কি না, গেলে কতটুকু করা যাবে।......
বিস্তারিত

জরায়ু মুখ ক্যান্সার প্রতিরোধে টিকা

ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য) এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
জরায়ু মুখ এই ভাইরাস দ্বারা যৌনমিলনের সময় আক্রান্ত হয়। শরীরের নিজস্ব প্রতিরোধ ক্ষমতার কারণে ৯৮% ক্ষেত্রে এই ভাইরাস আর থাকে না। ১-২% ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ মহিলাদের HPV থেকে যায়।......
বিস্তারিত

অস্বস্তিকর পেটের পীড়া- পেটফাঁপা থেকে দূরে থাকার উপায়

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু,নিউট্রিশনিস্ট
পেট ফাঁপা সমস্যার সাথে আমরা সবাই পরিচিত। হজমে সমস্যা হলে পেটে গ্যাসের সৃষ্টি হয় যার কারণেই মূলত পেট ফেঁপে থাকে। সাধারণত খাদ্যাভ্যাস এবং খাদ্য-তালিকায় অন্তর্ভুক্ত কয়েক প্রকার খাবারের কারণে.........
বিস্তারিত

'মাছ নাকি মাংস, কোনটা বেশি খাবো এবং কেন'

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
কথায় আছে মাছে ভাতে বাঙালি। নিত্যদিনের খাবারে মাছের উপস্থিতি না থাকলে যেন খাওয়ার পরিপুর্নতা আসে না। তবে সময়ের সাথে সাথে খাবারের প্লেট থেকে যেন মাছের উপস্থিতি কিছুটা কমে যাচ্ছে।......
বিস্তারিত

ভালোবাসার মনস্তত্ত্ব

জিয়ানুর কবির, ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
মনস্তত্ত্বে, ভালোবাসা এক ধরনের আবেগ। ভালোবাসার প্রক্রিয়াগুলোকে নারী ও পুরুষের ভালোবাসার সাড়া প্রদানের উপর ভিত্তি করে আলাদা বললেও তাদের মধ্যে পার্থক্য কিন্তু খুবই সামান্য।....
বিস্তারিত

বিশেষ শিশু পর্ব-১

নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)
মূলত এই ৮ ধরনের শিশু বেশি দেখা যায়! কারো কারো ক্ষেত্রে সমস্যা প্রকট থাকে। কারো ক্ষেত্রে অল্প থাকে। যাদের অল্প মাত্রায় থাকে থাকে সঠিক সময়ে কার্যকরী পদক্ষেপ নিলে দ্রুত সুস্থতার দিকে শিশু ধাবিত হয় এবং ৯০ ভাগ সুস্থ জীবনের দিকে ফিরে আসে!......
বিস্তারিত

মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে আমাদের করণীয়

ডা. ফাতেমা জোহরা , মনোরোগ, যৌনরোগ ও মাদকাসক্তি নিরাময় বিশেষজ্ঞ
১০ই অক্টোবর 'বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস'। এই বছরের প্রতিপাদ্য বিষয় হলো 'অসম বিশ্বে মানসিক স্বাস্থ্য '।শরীর এবং মন এ দুই নিয়ে হচ্ছে মানুষ।সুস্থ-সুন্দরভাবে জীবনযাপন করতে গেলে সুস্থ শরীর এবং সুস্থ মন সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ।....
বিস্তারিত

হার্ট এটাক সম্পর্কে যেসব তথ্য সবার জানা দরকার


ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন

মহিলারা কখন কয়টি টিটি টিকা নিবেন?


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,,Consultant Sonologist

জরায়ুর মুখে ক্যান্সার


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

ক্যান্সার ম্যানেজমেন্ট: ক্যান্সার রোগীদের জন্য জরুরি টিপস


ডাঃ লায়লা শিরিন

বাবার জন্য সন্তানের রক্ত কতটুকু নিরাপদ?


ডাঃ গুলজার হোসেন,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল

শিশুদের জিংক কেন প্রয়োজন? কিসে জিংক আছে?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)

সঠিকভাবে দাঁত পরিস্কারের নিয়ম


ডা: এস.এম.ছাদিক

কম বয়সে হার্টের সমস্যা ও করণীয়


ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন

ওজন কমানোর ডায়েট


ডাঃ গুলজার হোসেন

ব্রেস্ট এ সিস্ট কি বিপদজনক?


ডাঃ লায়লা শিরিন

মেয়েদের প্রস্রাবের সংক্রমণ


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী

ব্রেস্ট ফিডিং কেন করাবেন?


পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা

ডায়াবেটিস রোগীদের পায়ের যত্নে কিছু টিপস


ডাঃ আয়েশা রাইসুল (গভঃ রেজিঃ H-১৫৯৮)

গর্ভাবস্থায় গর্ভকালীন ডায়াবেটিসে করণীয়


ডা. ফাতেমা জোহরা

বিশেষ শিশু পর্ব-১


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী

কোমরের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে করণীয়ঃ


ডাঃ আয়েশা রাইসুল (গভঃ রেজিঃ H-১৫৯৮)

মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতে শরীরচর্চা বা ব্যায়াম কতটা দরকারি?


Dr. Fatema Zohra

লকডাউনে ওজন নিয়ন্ত্রণে রেখে ভাল থাকবেন কিভাবে?(১ম পর্ব)


Dietitian Shirajam Munira

জেনে নিন আপনি যে অভ্যাসগুলোর কারণে কিডনি রোগে আক্রান্ত হতে পারেন


নুসরাত জাহান, ডায়েট কন্সালটেন্ট

পবিত্র রমজান মাসের সংযম ও পুষ্টি


Nutritionist Iqbal Hossain

পবিত্র রমজান মাসে কোষ্ঠকাঠিন্য ও এসিডিটি এড়াতে কিছু স্বাস্থ্য সতর্কতা ও টিপস


Dr. Md Ashek Mahmud Ferdaus

ডিপ্রেশনের সাইকোলজিক্যাল কারণ


জিয়ানুর কবির

করোনার নতুন করে সংক্রমনে: প্রয়োজন রোগ প্রতিরোধী খাবারের তালিকা ও লাইফস্টাইল


পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা

কানে কডন বাড ব্যবহারের বিপদ


নুসরাত জাহান, ডায়েট কন্সালটেন্ট