Royalbangla
জিয়ানুর কবির
জিয়ানুর কবির

আপনি বিষন্নতায় ভুগছেন না সাধারণ মন খারাপে ভুগছেন জেনে নিন

মানসিক স্বাস্থ্য

বর্তমানে অনেকেই মন খারাপ হলেই বিষন্নতায় আক্রান্ত বলে মনে করে চিকিৎসার জন্য ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েন। আবার কেউ কেউ বিষন্নতায় আক্রান্ত হয়েও সেটাকে মনখারাপ বলে গুরুত্ব দেয় না এবং চিকিৎসা নিতে চায় না। তাই মন খারাপ ও বিষন্নতার গুরুত্বপূর্ণ পার্থক্যগুলি নিচে দেয়া হলো;

মন খারাপ একটি স্বাভাবিক আবেগ অন্যদিকে বিষন্নতা একটি আবেগজনিত মানসিক রোগ।

মন খারাপ বা স্যাডনেস বিষন্নতার একটা লক্ষন এর সাথে আরোও কয়েকটি লক্ষণ (সবমিলে কমপক্ষে ৫টি) থাকলে তাকে বিষন্নতা বলা হয়।

বেশিরভাগ মানুষের জীবনে কোন না কোন সময়ে মন খারাপ হয় কিন্তু অল্প কিছু মানুষ বিষন্নতায় আক্রান্ত হয়। বাংলাদেশে ৬.৭%মানুষ বিষন্নতায় আক্রান্ত (জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনিস্টিউট-২০১৯)।

মন খারাপ সাধারণত অল্প কিছুদিন থাকে এটা ক্ষনস্থায়ী অন্যদিকে বিষন্নতা দীর্ঘদিন অর্থাৎ ১৪ দিন বা তার বেশি সময় থাকে।

বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই মন খারাপের কারণ জানা যায়। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিষন্নতার কারণ জানা যায় না।

মন খারাপের সময় শারীরিক লক্ষণ থাকে না। কিন্তু বিষন্নতায় শারীরিক লক্ষণ থাকে (যেমন- খাবার রুচির বেশি বা কম, ঘুমের পরিমান বেশি বা কম ইত্যাদি)।

মন খারাপের সময় কাজকর্মের আগ্রহ কিছুটা থাকে। এই সময় প্রিয়কাজ করতে ভালো লাগে তবে বিষন্নতায় কাজকর্ম করার আগ্রহ মারাত্মকভাবে হ্রাস পায়।

মন খারাপের জন্য কখনোই ব্যক্তিগত, পারিবারিক, পেশাগত কাজকর্ম ও জীবনযাত্রা তেমন ব্যাহত হয় না। কিন্তু বিষণ্ণতার কারনে ব্যক্তির ব্যক্তিগত, সামাজিক, পারিবারিক এমনকি পেশাগত জীবন চরমভাবে ব্যহত হয়।

বাইরে ঘুরতে গেলে, প্রিয়জনের সাথে ভালো সময় কাটালে কিংবা ভালো খাবার খেলে মনখারাপ ভালো হয়ে যায় কিন্তু বিষন্নতা ভালো হয় না।

১০

বিষন্নতার জন্য সাইকোথেরাপি বা মেডিসিন বা কোন কোন সময়ে দুই চিকিৎসারই প্রয়োজন হয় কিন্তু মন খারাপের জন্য সাধারণত চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না।

লেখক
জিয়ানুর কবির
ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
বি-এস.সি (অনার্স), সাইকোলজি
পিজিটি (সাইকোথেরাপি)
এম.এস ও এম.ফিল (ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি)।
কল্যাণ মানসিক হাসপাতাল
দক্ষিণ কল্যানপুর,মিরপুর রোড, ঢাকা
ফোন নম্বর:০১৭৪৮৭৮৭৮২৩
লেখকের সাথে যোগাযোগ করতে নিচের ফেসবুক পেইজে ক্লিক করুন
www.facebook.com/jianur.kabir

  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

অতিরিক্ত চিনি খেয়ে স্বাস্থ্যের ক্ষতি করছেন না তো???


.

আপনি কি ডিপ্রেশনে আক্রান্ত?


জিয়ানুর কবির,সাইকোথেরাপিস্ট
.

ডিপ্রেশনের সাইকোলজিক্যাল কারণ


জিয়ানুর কবির
.

কিভাবে বুঝবেন আপনি উদ্বিগ্নতায় (Anxiety) আক্রান্ত?


জিয়ানুর কবির
.

আসুন সংক্ষেপে জানি বিষন্নতা বা depression কি ? কি করা উচিত ?


ডা. ফাতেমা জোহরা
.

বাচ্চাদের পিতা-মাতার স্নেহ-ভালোবাসা কেন প্রয়োজন?


জিয়ানুর কবির
.

আসুন প্রসবোত্তর বিষন্নতা (Postpartum Depression) সম্বন্ধে জানি


জিয়ানুর কবির
.

আপনি বিষন্নতায় ভুগছেন না সাধারণ মন খারাপে ভুগছেন জেনে নিন


জিয়ানুর কবির
.

রাগ প্রকাশের গ্রহনযোগ্য উপায়।


জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট,বি-এস.সি (অনার্স), সাইকোলজি,পিজিটি (সাইকোথেরাপি),এম.এস ও এম.ফিল
.

আত্মহত্যা প্রতিরোধে আমাদের যা করা উচিত


ডা. ফাতেমা জোহরা , মনোরোগ, যৌনরোগ ও মাদকাসক্তি নিরাময় বিশেষজ্ঞ
.

কিভাবে বুঝবেন আপনি illness Anxiety/ Health Anxiey disorder বা অসুস্থতাজনিত উদ্বেগ রোগে আক্রান্ত??


জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট,বি-এস.সি (অনার্স), সাইকোলজি

কমসময়ে ঘরে তৈরি রেস্তোরাঁ স্টাইলে ছোট মাছের চচ্চড়ি

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু
সামান্য তেলে অল্প আঁচে মাছ ১-২ মিনিট ভেজে উঠিয়ে নিতে হবে। পরবর্তীতে ফ্রাই প্যানে তেল দিয়ে একে একে পেয়াজ কুঁচি, কাঁচা মরিচ, হলুদ এবং লবণ দিয়ে কিছুক্ষণ ভেজে নিতে হবে৷ এরপরে মাছ দিয়ে আরও কিছুটা সময় ভেজে চুলা বন্ধ করে ধনিয়াপাতা দিয়ে মিশিয়ে নিলেই খুব অল্প সময়ে তৈরি হয়ে যাবে স্বাস্থ্যকর কাচকি মাছের চচ্চড়ি।.....
বিস্তারিত

শিঙাড়া কি আসলেই খারাপ?

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
মানুষ খাদ্যে বৈচিত্র্য আনতে খুব পছন্দ করে। একই উপাদানের ভিন্ন ভিন্ন খাবার খেতেও পছন্দ করে। এর মধ্যে হয়তো কিছু খাবার স্বাস্থ্যসম্মত হয়, কিছু খাবার হয় না। আবার কোনো খাবার এতই জনপ্রিয় যে .....
বিস্তারিত

দাম্পত্য জীবন সুখি করবেন কিভাবে??

জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
বর্তমানে প্রাকটিসে প্রায় দম্পতিরা সমস্যা নিয়ে আসেন। কোন সময় একজন এসে তার সঙ্গীর সমস্যা বলতে থাকেন। আবার কখনো দুজনই একসাথে আসেন।.....
বিস্তারিত

খালিপেটে নাকি ভরাপেটে খাবেন ঔষধ!!

ডা. মুহম্মদ মুহিদুল ইসলাম,সায়েন্টিফিক অফিসার
আজকাল অনেক চিকিৎসক ই আছেন রোগী কে সুন্দর করে প্রেস্ক্রিপশন বুঝিয়ে বলে দেন।এতে রোগী যেমন রোগ সম্পর্কে সচেতন হয় তেমনি ঔষধ গুলো বুঝে নিলে চিকিৎসক এর নির্দেশনা মেনে খেতে পারে।....
বিস্তারিত