Royalbangla
রয়াল বাংলা ডেস্ক
রয়াল বাংলা ডেস্ক

শরীরের ক্যালসিয়ামের পরিমাণ বৃদ্ধির উপায়

ক‌্যালসিয়াম

শরীরের সুস্থ্যতা ও শক্তিমত্তা ধরে রাখার জন্য ক্যালসিয়াম অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ন উপাদান। এটি পেশি ও স্নায়ুতন্ত্রের নিয়ন্ত্রনের জন্য ভীষণ দরকারি, এছাড়া রক্তে অম্ল ও ক্ষারের ভারসম্য বজায় রেখে পি এইচ সাম্যাবস্থায় রাখে। ক্যালসিয়ামের অভাবে শরীরের দুর্বলতা বৃদ্ধি পেতে পারে, স্মৃতি বিভ্রাট, হাড় ও দাঁত ক্ষয় হতে পারে এছাড়া নানা ধরনের জটিলতা দেখা দিতে পারে।
জীবন ধারণের দৈনন্দিন কিছু অভ্যাস ও খাদ্যতালিকায় সামান্য কিছু খাবারের অভ্যাস পরিবর্তনের মাধ্যমে শরীরের ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করা ও এসব রোগের ঝুঁকি এড়িয়ে চলা সম্ভব। সবার আগে জানা দরকার ক‌্যালসিয়ামের ঘাটতি আছে কিনা ক‌্যালসিয়ামের ঘাটতি আছে কিনা । নিচে দরকারি কিছু টিপস প্রদান করা হলো-
  1. ১। প্রচুর ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খাওয়াঃ
    এ ঘাটতি পুরনের জন্য অবশ্যই সর্ব প্রথম খাবার তালিকায় যথেষ্ট পরিমাণ ক্যালসিয়াম ভরপুর খাবার থাকতে হবে। যেমন-
    * দুধ একটি ভাল উৎস এজন‌্য দুধ, দুগ্ধজাত খাবার যেমন, দই, মাখন , মাঠা , ছানা ইত্যাদি।
    * সবুজ শাক সবজিঃ পালং শাক, ডাঁটা শাক, মেথি শাক, বরবটি, ব্রকলি ও অন্যান্য।
    * ডালঃ মুগ ডাল, মসুর ডাল, ছোলা, খেসারী ও অড়হরের ডাল প্রভৃতি।
    * ফলঃ কমলা লেবু, বাদাম, শিমের বিচি, কাঠ বাদাম, তিল ইত্যাদি।
  2. ২। নিয়মিত সকালে হাঁটার অভ্যাস করাঃ
    ভিটামিন ডি শরীরের ক্যালসিয়াম গ্রহণ ও সঞ্চালন ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। দৈনিক সকালে সূর্যালোকে ১০-১৫ মিনিটের জন্য হলেও শরীরে রোদ লাগিয়ে হাঁটা খুবই ভালো অভ্যাস। তবে প্রচন্ড রোদ এড়িয়ে চলা উচিৎ তাতে ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হয়।
  3. ৩। ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার গ্রহনঃ
    যেহেতু ভিটামিন ডি শরীরে ক্যালসিয়াম ধরে রাখতে সাহায্য করে তাই ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া উচিৎ প্রচুর পরিমাণে।
    ডিমের কুসুম, মাছ, ডিম, মাশরুম, গাভীর দুধ প্রভৃতি ভিটামিন ডি এর পরিচিত উৎস।
  4. ৪। ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খাওয়াঃ
    ম্যাগনেসিয়াম অপর একটি পুষ্টি উপাদান যা শরীরের ক্যালসিয়ামের ভারসম্য বজায় রাখা ও গুরুত্বপুর্ন কাজে সহায়তা করে।
    ম্যাগনেসিয়াম ও ক্যালসিয়াম সংযুক্ত যৌগ হিসেবে কোষে অবস্থান করে তাই এর প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। পালং শাক, বীট কপি শাক, ধুন্দল, ঝিঙে, শসা, সরিষা শাক, মোটর ডাল, কলাই, কুমড়ো বিচি, শিমের বিচি ইত্যাদি খাবারে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম থাকে।
  5. ৫। কোমল পানীয় বর্জনঃ
    যে কোন ধরনের কোমল পানীয় সেটা চিনি যুক্ত বা চিনি বিহীন হোক না কেন, তা শরীরের ক্যালসিয়াম ধারন ক্ষমতার উপর প্রভাব ফেলে। কোমল পানীয় রক্তে ফসফেটের মাত্রা বৃদ্ধি করে যা শরীর থেকে ক্যালসিয়াম বের করে দেয়। তাই সব ধরনের কোমল পানীয় বর্জন করা আবশ্যক।
  6. ৬। অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণ থেকে বিরত থাকাঃ
    আধুনিক জীবন যাত্রায় প্রতিদিন এক কাপ কড়া কফির সঙ্গে সকাল শুরু করা একটি প্রচলিত অভ্যাসে দাড়িয়ে গেছে। কিন্তু আপনি যদি ক্যালসিয়ামের ঘাটতিতে ভুগে থাকেন তবে অবশ্যই কফি পানের অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।
    * চা, কফিতে থাকা ক্যাফেইন হাড়ের ক্যালসিয়াম বিশ্লিষ্ট হতে প্রভাবিত করে।
    * দৈনিক ৪ কাপের বেশি কফি পান করলে হাড় ও দাঁতের খতের সম্ভাবনা বেড়ে যায় প্রচুর পরিমাণে।
    * ২ কাপের অধিক কফি পান একেবারেই নিষিদ্ধ এবং সন্ধার পর একেবারেই নয়।
    * ক্যাফেইন বিহীন গ্রীন টি পান করা যেতে পারে পরিমিত।
  7. ৭। অধিক লবণ খাওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবেঃ
    খাবারে অতিরিক্ত লবণ খাওয়া বা কাঁচা লবণ খাওয়ার অব্যাস খুবই ক্ষতিকর। লবনে থাকা সোডিয়াম শরীরের ক্যালসিয়াম ভেঙ্গে ফেলে এবং তা বর্জ্য হিসেবে বের করে দেয়। হাড়ের ও দাঁতে জমে থাকা ক্যালসিয়াম স্তরেও খতিসাধন করে অতিরিক্ত লবণ।
  8. বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে শরীরের সকল পুষ্টি উপাদানের ধারন ক্ষমতা ও ভারসম্যতায় আসে পরিবর্তন। তাই শরীরের শক্তিমত্তা ও স্বাভাবিক সুস্থ্যতা ধরে রাখতে ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, সোডিয়াম সমৃদ্ধ খাবার নিয়ম অনুযায়ী পরিমিত পরিমাণে দৈনিক গ্রহণ করা আবশ্যক। তবে হঠাৎ ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ক্যালসিয়াম ট্যাবলেট গ্রহণ করা যেতে পারে।
  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

জেনে নিন থাইরয়েড সমস্যায় ওষুধ খাওয়ার সঠিক নিয়ম


.

নুডুল্ স এর ভাল-মন্দ


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

চর্বি জাতীয় খাবার মানেই খারাপ কিছু নয়- দেখুন কিছু স্বাস্থ‌্যকর দরকারী বাঙালি চর্বি জাতীয় খাবার


রয়াল বাংলা ডেস্ক
.

ফুড সাপ্লিমেন্ট কি ? কেন নেবেন?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আপনি জানেন কী কেন প্রতিদিন দুধ খাওয়া উচিত ? জেনে নিন


ডায়েটিশিয়ান সিরাজাম মুনিরা
.

চুল পড়া রোধে কী করবেন ? এবং কী খাবেন?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আলু খেলে কি মোটা হয় ?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

দীর্ঘদিন ধরে পেট খারাপ বা আইবিএস হলে কী করবেন


ডায়েটিশিয়ান সিরাজাম মুনিরা
.

আপনি কি নিজের অজান্তে আয়রন এর অভাবে ভুগছেন ?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আপনি জানেন কি কফি কেন , কিভাবে এবং কখন খাওয়া প্রয়োজন ?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আপনি কি সারাক্ষণ ক্লান্ত বোধ করেন?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী

আক্কেল দাঁত কখন এবং কেন ফেলতে হয়?

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
সাধারণত আক্কেল দাঁত সম্পূর্ণভাবে উঠার সময় হলো ১৭-২৫ বছর বয়স । কিন্তু ১৭-২০ বছর বয়সের মধ্যেই বুঝা যায় আক্কেল দাঁত সঠিকভাবে উঠবে কি না।....
বিস্তারিত

শালগম এর উপকারীতা

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
শালগম অত্যন্ত পুষ্টিকর খাদ্য হিসেবে সুপরিচিত। ভিটামিন এ, সি এবং ভিটামিন কে তে ভরপুর থাকে শালগম। শালগমের সবচাইতে ভালো দিক হচ্ছে এদের ক্যালরি খুব কম থাকে। নিয়মিত শালগম খাওয়ার কিছু কারণ সম্পর্কে জেনে নিই চলুন।........
বিস্তারিত

সাইনাস আর সাইনুসাইটিস, আসুন সহজে বুঝে নিই.

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
স্বাভাবিক নিশ্বাস নিতে মনে হয় নাকে কি যেনো আটকে আছে,, আবার নাক দিয়ে পানিও পড়ে। গায়ে হালকা জ্বর ও আছে, আবার সাথে মাথা ব্যাথা। তিনি ডাক্তারের কাছে গেলেন, ডাক্তার বললেন, আপনার সাইনুসাইটিস হয়েছে,........
বিস্তারিত

গর্ভাবস্থায় কি চা-কফি পান করা যায়?

ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,Consultant Sonologist
চা ও কফি আপনাদের অনেকেরই প্রছন্দের পানীয়। তাই গর্ভাবস্থায়ও খেতে চান, তাই না? এ ক্ষেত্রে আমাদের জানা উচিত এই পানীয় পান করা যাবে কি না, গেলে কতটুকু করা যাবে।......
বিস্তারিত

বাচ্চাদের ফল ও সবজি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলবেন কিভাবে?


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন।বিএসসি (সম্মান), এমএসসি (প্রথম শ্রেণী) (ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি)

মহিলাদের ইনফার্টিলিটি দূর করার ক্ষেত্রে ডিম্বাণুর গুণাগুণ কেন গুরুত্বপূর্ণ?


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

কিডনী সিস্ট কতটা ঝুঁকিপূর্ণ ?


ডাঃ মোহাম্মদ ইব্রাহিম আলী,এম.বি.এস,বিসিএস (স্বাস্থ্য) ,এমএস (ইউরোলজি)

শিশুদের ডায়েট কেমন হওয়া উচিত ?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)

লিভারের সুস্থতায় কি করবেন?


নুসরাত জাহান, ডায়েট কনসালটেন্ট

অনিয়মিত পিরিয়ডের কারণ , চিকিৎসা ও ঘরোয়া প্রতিকার


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী