Royalbangla
ডায়েটিশিয়ান ফারজানা
ডায়েটিশিয়ান ফারজানা

করোনা ভাইরাসের সেকেন্ড ওয়েভঃ করোনা ভাইরাস বা কভিড 19 প্রসঙ্গে যেসব কথা আমাদের সবার জানা প্রয়োজন

রোগ প্রতিরোধ


  1. কভিড ১৯ নতুন একটি করোনাভাইরাস ঘটিত ঠান্ডা, কাশি ও জ্বর উপসর্গযুক্ত একরকম অসুখ যেটা ৮০% এর উপরে রোগীর ক্ষেত্রেই কোনরকম চিকিৎসা ছাড়াই ভাল হয়ে যায়। তবে কিছু ক্ষেত্রে ফুস্ফুসের সংক্রমন জটিল আকার ধারন করায় খারাপ রকম নিউমোনিয়া দেখা দেয় । সেক্ষেত্রে জীবন সংশয়ে পড়তে পারে। যাই হোক এই রোগের কিছু বৈশিষ্ট জানানোর চেষ্টা করছিঃ
  2. এক
    এটি ভাইরাসঘটিত অসুখ। ব্যকটেরিয়া বা প্যারাসাইটঘটিত নয় যে এন্টিবায়োটিক খেয়ে ভাল হয়ে যাবেন।
  3. দুই
    এই রোগ হলে আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাই ভাইরাসকে দমাবে। সেজন্য প্রয়োজন রোগ প্রতিরোধী খাবার ঔষধ শুধুমাত্র লক্ষনভিত্তিক কিছু সুবিধা দিবে। যেমন জ্বর কমাতে নাপা বা শ্বাসকষ্টের উপশমের জন্য অক্সিজেন বা অন্যান্য ঔষধ।
  4. তিন
    যেহেতু এই রোগে একশ জন রোগির মদ্ধে ৮০ জনের উপরে সাধারন চিকিতসাতেই ভাল হয়ে যায় সেহেতু বিভিন অপ ঔষধ এক্ষেত্রে কার্যকরি মনে হতে পারে। যেমনঃ থানকুনি পাতা, ইথানল ভাপ, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন, কুইনাইন সহ নানান ঔষধ প্রয়োগ করে সবাই বিস্ময়কর সাফল্য দাবি করে বসছে। এলোপ্যাথি, হোমিওপ্যথি বা ভেষজ কোনকিছুই বাদ নেই। সবাই কিছু না কিছু সমাধান নিয়ে হাজির। ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ছাড়াই। আর সবাই ৮০% সাফল্যতো পাবেই । কারন ৮০% এর উপরে রোগি এমনিতেই ভাল হয়ে যায়। যাই হোক কার্যকর ঔষধ বের করে ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল দেয়া হচ্ছে নিয়মিত। তবে ভাইরাসঘটিত অসুখে সবার জন্য কার্যকর ঔষধ বের হবার সম্ভাবনা খুব কম। ভ্যাক্সিন আসতেও অনেক সময় লাগবে। তাছাড়া ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের ভ্যাক্সিন এক দেড় বছরের বেশি কার্যকর থাকে না। তাই ভ্যাক্সিন নিলেও এক দেড় বছরের বেশি নিশ্চিন্ত থাকতে পারবেন বলে মনে হচ্ছে না। এছাড়া লকডাউন করে তো আজীবন একে ঠেকিয়ে রাখাটা বাস্তবে অসম্ভব। তাই শীঘ্রই যখন সব স্বাভাবিক হয়ে আসবে তখন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হবার ঝুকি নিয়েই আমাদের চলতে হবে। তাই আমাদের টার্গেট হতে হবে যাতে এতে আক্রান্ত না হই। আর যদি আক্রান্ত হয়েই যাই এই ভাইরাস যাতে আমাদের কাবু করতে না পারে। আক্রান্ত না হবার জন্য

  5. ভিড় ভাট্টা এড়িয়ে চলুন। বাজার বা ভিড়ের মদ্ধে এক জায়গায় যত কম দাড়াবেন তত ভাল। অকারনে আড্ডা দেয়া থেকে বিরত থাকুন । দিলেও ৩ ফিট দূরত্ব বজায় রাখুন এবং খোলা বাতাসে আড্ডা দিন।

  6. মাস্ক পড়ুন । দাম, সহজপ্রাপ্যতা, কার্যকারিতা আর ব্যাবহারে সুবিধা বিবেচনায় নিলে ৩ লেয়ারের সার্জিক্যাল মাস্ক সবচাইতে ভাল। মাস্ক পড়ে ফু দিয়ে দেখবেন বাতাস খুব বেশি বের হচ্ছে কিনা। যদি মাস্ক পড়ে মোমবাতি নিভাতে পারেন তাহলে সেই মাস্ক মানসম্মত নয়।

  7. মাস্ক নাকের নিচে দিয়ে রাখার জন্য নয়। যদি চেহারা শো অফ করতেই হয় তাহলে দূরত্ব বজায় রেখে মাস্ক নাকের নিচে নামাবেন। এছাড়া অবশ্যি মাস্ক দিয়ে নাক ঢেকে রাখবেন। নোজবার ঠিকভাবে চাপ দিয়ে ফিটিং করবেন আর চশমা থাকলে মাস্ক চশমা দিয়ে চাপা দেবেন। যারা চশমা পড়েন না তারা গগলস পড়তে পাড়েন চাইলে। নাকের নিচে মাস্ক রাখার চাইতে মাস্ক না পড়াই ভাল।

  8. কোনও মাস্কই ধোয়া যাবেনা। সবচেয়ে ভাল একবার (৮ ঘন্টা) ব্যবহারের পর ডাস্টবিনে ফেলে দিলে। আবার ব্যাবহার করতে চাইলে সাবধানে কোন প্যাকেট বা কৌটায় ৭ দিন রেখে পরে ইউজ করতে পাড়েন। চাইলে রোদে দুই তিন দিন শুকিয়ে ইউজ করতে পারেন।

  9. যাদের ফিজিক্যাল ফিটনেস আর শ্বাস প্রশ্বাস ফিটনেস ভাল তারা চাইলে এন৯৫ এফ এফ পি ২ গ্রেডের রেস্পিরেটর হাফ ফেস মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। এগুলাও টানা আট ঘন্টা ব্যাবহার করা যায়। কোন সমস্যা নেই। তবে যদি নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হয় তাহলে অবশ্যি এগুলা বাদ দিয়ে সার্জিক্যাল ব্যাবহার করবেন। এন৯৫ এফ এফ পি ২ গ্রেডের রেস্পিরেটর মাস্কে ইলেক্ট্রোস্ট্যীটীক চার্জ দেয়া থাকে ছোট পার্টিক্যাল আটকানোর জন্য। তাই ধোয়ার কথা চিন্তাই করবেন না। এমনকি স্যানিটাইজার বা ইথানল স্প্রে করলেও এর ফিল্টারিং ক্যাপবিলিটি নষ্ট হয়ে যায়। তাই রোদে শুকিয়ে বা এক সপ্তাহ রেখে দিয়ে রিইউজ করতে পারবেন। এইসব মাস্ক কিভাবে পড়তে হয় এবং সিল করতে হয় তা ইউটিউবে দেখে নেবেন। এইসব মাস্ক ফিজিক্যাল ডেমেজ না হলে বা ছিড়ে না গেলে ৩০ বার ব্যাবহার করতে পারবেন।

  10. যাদের সার্জিক্যাল বা রেস্পিরেট্র ব্যাবহারের সুযোগ নেই তারা কাপড়ের মাস্ক ব্যাবহার করবেন। ধুয়ে ব্যবহার করা যায়। তবে এসব মাস্কের ভাইরাস আটকানোর ক্ষমতা সার্জিক্যাল মাস্কের অর্ধেক।

  11. হাত ধোয়ার ব্যাপারটা সবাই জানেন। হাত মুখে বা চোখে দেবেন না। মুখ বা চোখে হাত দিতে হলে সাবান দিয়ে ২০ সেকেন্ড ভাল করে ধুয়ে নেবেন। হ্যান্ড স্যানিটাইজার ভাল কোম্পানিরগুলো ব্যাবহার করতে পাড়েন । তবে সাবান সবচাইতে ভাল।
    উপরের পয়েন্টগুলির মদ্ধে সবচেয়ে গুরত্বপূর্ন হচ্ছে মাস্ক দিয়ে নাক ঢাকা । যে মাস্কই হোক।
    উপরের পরামর্শগুলো আক্রান্ত হওয়া থেকে বাচাতে সাহায্য করবে। তবে যদি আক্রান্ত হয়েই যান সেক্ষেত্রে আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে হবে যাতে কাবু না হন। নিচের পরামর্শগুলো মেনে চলতে হবে
  12. এক
    ক্রনিক ডিজিজ (ডায়াবেটিস, প্রেশার ইত্যাদি) যাদের আছে তারা তা নিয়ন্ত্রনে রাখুন। ডাক্তারের পরামর্শ নিন।
  13. দুই
    রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ান। এজন্য সুষম খাদ্য তালিকা অনুসরন করুন। যেকোন নিউট্রিশনিস্ট বা আমার পরমার্শ নিতে পারেন ।
  14. তিন
    টেনশন বা মানসিক চাপমুক্ত পারিবারিক জীবনযাপন করুন। নিজের উপর নির্ভর করছে।
  15. চার
    ৭ ঘন্টা টানা ঘুমাতে হবে প্রতিদিন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ঠিক রাখতে। নিজের উপর নির্ভর।
  16. পাঁচ
    শারিরীক ফিটনেস বাড়ান । অতিরিক্ত ওজন ঝড়িয়ে ফেলুন। প্রতিদিন আধাঘন্টা ব্যায়াম করুন। ইউটিউবে দেখে ঘরেই ব্যায়াম করতে পারেন। ফিটনেস ট্রেইনার এর সাহায্যও নিতে পারেন
  17. ছয়
    এখানের সব তথ্য অথেনটিক সোর্স থেকে দেবার চেষ্টা করেছি। তাই ঘন ঘন গরম পানি বা ঘন ঘন চা খাবার কথা বললাম না। কারন এগুলোর উপকার এখনো পরীক্ষিত নয়। তবে এতে কোন ক্ষতিও নেই। তবে বেশি গরম পানি পেটের জন্য ক্ষতিকর আর গরম পানির ভাপ ফুসফুসের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া এগুলো চর্চা করবেন না দয়া করে।
  18. সাত
    পরিবারের সবার সাথে হাশিখুশি দুঃশ্চিন্তমুক্ত সম্পর্ক রাখুন। কর্মক্ষত্রেও তাই। মানসিক চাপ, পারিবারিক ঝগড়াঝাটি, দুঃশ্চিন্তা এসব রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। তাই যার যেভাবে সম্ভব এসব এড়িয়ে চলুন। প্রতিমুহূর্তে কতজন আক্রান্ত, আজকে করোনায় কতজন মারা গেলেন এসব নিয়ে অযথা আলোচনা বা চিন্তাভাবনা পরিহার করুন।
    মনে রাখবেন দুনিয়ার সব সমস্যা সমাধানের দায়িত্ব আপনার নয়। সেসব নিয়ে চিন্তা করাও আপনার কাজ নয়। দেশের কোথায় দূর্নীতি হচ্ছে, কোথায় ত্রানচুরি হচ্ছে সেটা দেখার লোক আছে। আর না থাকলেও আপনার মাথা ঘামানোতে সেই সমস্যা দূর হবে না। তাই অযথা সব বিষয়ে মাথা ঘামিয়ে হতাশা বাড়াবেন না
    ধন্যবাদ সবাইকে।
    ডায়েটিশিয়ান ফারজানা
    চেম্বারঃ ১৯ একে কমপ্লেক্স, গ্রীন রোড (সেন্ট্রাল হস্পিটালের বিপরীতে), ঢাকা।
    এপয়েন্টমেন্টঃ ০১৭১-৭২৩৭৭২২
  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

জেনে নিন থাইরয়েড সমস্যায় ওষুধ খাওয়ার সঠিক নিয়ম


.

মাড়িতে ব‌্যথা বা ফুলে যাওয়া বা মাড়িতে ফোঁড়া প্রতিরোধে করণীয়


রয়াল বাংলা ডেস্ক
.

মুখের দুর্গন্ধ দূর করার উপায়


রয়াল বাংলা ডেস্ক
.

সময় অসময়ে মন খারাপ থাকলে যা করনীয়


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

কানের ব্যথা কেন হয় ? এর লক্ষণ ও প্রতিকার


ডাঃ আয়েশা রাইসুল (গভঃ রেজিঃ H-১৫৯৮)
.

চুল পড়া রোধে কী করবেন ? এবং কী খাবেন?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আপনি যে টুথব্রাশ টি ব্যবহার করছেন সেটি স্বাস্থ্য সম্মত তো?


রয়াল বাংলা ডেস্ক
.

বাসায় বয়স্কদের স্বাস্থ‌্যের যত্নে কিছু টিপস


জয়তী মুখার্জী
.

মাথার পাশে মোবাইল রেখে ঘুমাচ্ছেন ? মোবাইল ফোন আপনার ক্ষতি করছে নাতো ?


ডাঃ আয়েশা রাইসুল (গভঃ রেজিঃ H-১৫৯৮)
.

করোনা ভাইরাসের সেকেন্ড ওয়েভঃ করোনা ভাইরাস বা কভিড 19 প্রসঙ্গে যেসব কথা আমাদের সবার জানা প্রয়োজন


ডায়েটিশিয়ান ফারজানা
.

করোনার ২য় ঢেউ মোকাবিলা করবেন কিভাবে ?


ডায়েটিশিয়ান ফারজানা
.

থ‌্যালাসেমিয়া কি ? কেন হয় ?


ডাঃ সাঈদ সুজন
.

রক্ত কখন কেন কিভাবে দিবেন?


ডাঃ সাঈদ সুজন
.

রক্তের HBsAg Test কাদের করা উচিত?


Dr. Faiz Ahmad Khondaker
.

অ্যাজমা, হাঁপানি বা শ্বাসকষ্ট প্রাকৃতিক ভাবে নিয়ন্ত্রণ করার উপায়


Nusrat Jahan
.

ক্যান্সারের ঝুকিমুক্ত থাকতে, ৭ টি বিষয় মাথায় রাখুন


নিউট্রিশনিস্ট ইকবাল হোসেন

কেন হাসবো???

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
কর্মব্যস্ত জীবনে আমরা যেন হাসতেই ভুলে গেছি। সারাদিন নিজেদের কাজগুলোই সঠিকভাবে করতে পারিনা, তাহলে হাসি আসবে কোথাথেকে? সকাল ৮ টায় অফিসে বের হই আর বাসায় আসি রাত১০ টায়.....
বিস্তারিত

বাচ্চা কথা বলে না

নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী
দুই বছর আগেও এই অভিযোগ এত শুনিনি।কিন্তু গেলো ৬ মাসে ৯০% আমার পেশেন্ট ই শিশু। এবং এদের ভেতর ৬০ ভাগ ই কথা বলছে না,কম বলছে বা দেরিতে বলছে!....
বিস্তারিত

বিভিন্ন কারণে হৃদপিণ্ডের সমস্যা হলে কী করণীয়?

ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন,হৃদরোগ, বাতজ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ রোগ বিশেষজ্ঞ
হৃদপিণ্ডের রক্তনালির ব্লকজনিত ব্যথা ওপরের পেটে হতে পারে বা গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা ভেবে ভুল হতে পারে। তাছাড়া এ ধরনের ব্যথা শুধু গলার ওপর চাপ চাপ ধরনের হতে পারে, মনে হয় গলায় কিছু আটকে আছে এবং নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসবে।.....
বিস্তারিত

প্রসূতি স্ত্রীর প্রতি স্বামীর করণীয়

ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
স্ত্রীকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাবার দায়িত্ব (কোনো সমস্যা না থাকলে) আপনাকেই নিতে হবে। এতে আপনার স্ত্রী অনুভব করবে, আপনি তাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তৃতীয় বিশ্বের দেশের জন্য পুরো গর্ভকালীন সময় ন্যূনতম চার বার চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাবার বিধান রেখেছে।.......
বিস্তারিত

সাইনাস আর সাইনুসাইটিস, আসুন সহজে বুঝে নিই.

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
স্বাভাবিক নিশ্বাস নিতে মনে হয় নাকে কি যেনো আটকে আছে,, আবার নাক দিয়ে পানিও পড়ে। গায়ে হালকা জ্বর ও আছে, আবার সাথে মাথা ব্যাথা। তিনি ডাক্তারের কাছে গেলেন, ডাক্তার বললেন, আপনার সাইনুসাইটিস হয়েছে,........
বিস্তারিত

গর্ভাবস্থায় কি চা-কফি পান করা যায়?

ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,Consultant Sonologist
চা ও কফি আপনাদের অনেকেরই প্রছন্দের পানীয়। তাই গর্ভাবস্থায়ও খেতে চান, তাই না? এ ক্ষেত্রে আমাদের জানা উচিত এই পানীয় পান করা যাবে কি না, গেলে কতটুকু করা যাবে।......
বিস্তারিত

জরায়ু মুখ ক্যান্সার প্রতিরোধে টিকা

ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য) এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
জরায়ু মুখ এই ভাইরাস দ্বারা যৌনমিলনের সময় আক্রান্ত হয়। শরীরের নিজস্ব প্রতিরোধ ক্ষমতার কারণে ৯৮% ক্ষেত্রে এই ভাইরাস আর থাকে না। ১-২% ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ মহিলাদের HPV থেকে যায়।......
বিস্তারিত

অস্বস্তিকর পেটের পীড়া- পেটফাঁপা থেকে দূরে থাকার উপায়

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু,নিউট্রিশনিস্ট
পেট ফাঁপা সমস্যার সাথে আমরা সবাই পরিচিত। হজমে সমস্যা হলে পেটে গ্যাসের সৃষ্টি হয় যার কারণেই মূলত পেট ফেঁপে থাকে। সাধারণত খাদ্যাভ্যাস এবং খাদ্য-তালিকায় অন্তর্ভুক্ত কয়েক প্রকার খাবারের কারণে.........
বিস্তারিত

'মাছ নাকি মাংস, কোনটা বেশি খাবো এবং কেন'

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
কথায় আছে মাছে ভাতে বাঙালি। নিত্যদিনের খাবারে মাছের উপস্থিতি না থাকলে যেন খাওয়ার পরিপুর্নতা আসে না। তবে সময়ের সাথে সাথে খাবারের প্লেট থেকে যেন মাছের উপস্থিতি কিছুটা কমে যাচ্ছে।......
বিস্তারিত

ভালোবাসার মনস্তত্ত্ব

জিয়ানুর কবির, ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
মনস্তত্ত্বে, ভালোবাসা এক ধরনের আবেগ। ভালোবাসার প্রক্রিয়াগুলোকে নারী ও পুরুষের ভালোবাসার সাড়া প্রদানের উপর ভিত্তি করে আলাদা বললেও তাদের মধ্যে পার্থক্য কিন্তু খুবই সামান্য।....
বিস্তারিত

বিশেষ শিশু পর্ব-১

নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)
মূলত এই ৮ ধরনের শিশু বেশি দেখা যায়! কারো কারো ক্ষেত্রে সমস্যা প্রকট থাকে। কারো ক্ষেত্রে অল্প থাকে। যাদের অল্প মাত্রায় থাকে থাকে সঠিক সময়ে কার্যকরী পদক্ষেপ নিলে দ্রুত সুস্থতার দিকে শিশু ধাবিত হয় এবং ৯০ ভাগ সুস্থ জীবনের দিকে ফিরে আসে!......
বিস্তারিত

মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে আমাদের করণীয়

ডা. ফাতেমা জোহরা , মনোরোগ, যৌনরোগ ও মাদকাসক্তি নিরাময় বিশেষজ্ঞ
১০ই অক্টোবর 'বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস'। এই বছরের প্রতিপাদ্য বিষয় হলো 'অসম বিশ্বে মানসিক স্বাস্থ্য '।শরীর এবং মন এ দুই নিয়ে হচ্ছে মানুষ।সুস্থ-সুন্দরভাবে জীবনযাপন করতে গেলে সুস্থ শরীর এবং সুস্থ মন সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ।....
বিস্তারিত

হার্ট এটাক সম্পর্কে যেসব তথ্য সবার জানা দরকার


ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন

মহিলারা কখন কয়টি টিটি টিকা নিবেন?


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,,Consultant Sonologist

জরায়ুর মুখে ক্যান্সার


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

ক্যান্সার ম্যানেজমেন্ট: ক্যান্সার রোগীদের জন্য জরুরি টিপস


ডাঃ লায়লা শিরিন

বাবার জন্য সন্তানের রক্ত কতটুকু নিরাপদ?


ডাঃ গুলজার হোসেন,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল

শিশুদের জিংক কেন প্রয়োজন? কিসে জিংক আছে?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)

সঠিকভাবে দাঁত পরিস্কারের নিয়ম


ডা: এস.এম.ছাদিক

কম বয়সে হার্টের সমস্যা ও করণীয়


ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন

ওজন কমানোর ডায়েট


ডাঃ গুলজার হোসেন

ব্রেস্ট এ সিস্ট কি বিপদজনক?


ডাঃ লায়লা শিরিন

মেয়েদের প্রস্রাবের সংক্রমণ


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী

ব্রেস্ট ফিডিং কেন করাবেন?


পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা

ডায়াবেটিস রোগীদের পায়ের যত্নে কিছু টিপস


ডাঃ আয়েশা রাইসুল (গভঃ রেজিঃ H-১৫৯৮)

গর্ভাবস্থায় গর্ভকালীন ডায়াবেটিসে করণীয়


ডা. ফাতেমা জোহরা

বিশেষ শিশু পর্ব-১


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী

কোমরের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে করণীয়ঃ


ডাঃ আয়েশা রাইসুল (গভঃ রেজিঃ H-১৫৯৮)

মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতে শরীরচর্চা বা ব্যায়াম কতটা দরকারি?


Dr. Fatema Zohra

লকডাউনে ওজন নিয়ন্ত্রণে রেখে ভাল থাকবেন কিভাবে?(১ম পর্ব)


Dietitian Shirajam Munira

জেনে নিন আপনি যে অভ্যাসগুলোর কারণে কিডনি রোগে আক্রান্ত হতে পারেন


নুসরাত জাহান, ডায়েট কন্সালটেন্ট

পবিত্র রমজান মাসের সংযম ও পুষ্টি


Nutritionist Iqbal Hossain

পবিত্র রমজান মাসে কোষ্ঠকাঠিন্য ও এসিডিটি এড়াতে কিছু স্বাস্থ্য সতর্কতা ও টিপস


Dr. Md Ashek Mahmud Ferdaus

ডিপ্রেশনের সাইকোলজিক্যাল কারণ


জিয়ানুর কবির

করোনার নতুন করে সংক্রমনে: প্রয়োজন রোগ প্রতিরোধী খাবারের তালিকা ও লাইফস্টাইল


পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা

কানে কডন বাড ব্যবহারের বিপদ


নুসরাত জাহান, ডায়েট কন্সালটেন্ট