Royalbangla
পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা
পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা

ভোজ্য নারিকেল তেলের গুণাগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা

পুষ্টি

নারকেল তেল খাওয়া যায় আবার অন্যান্য কাজেও ব্যবহার করা যায়। আমাদের মধ্যে অনেকেই জানে না যে নারকেল তেল খাওয়া যায়। তবে সেক্ষেত্রে ভার্জিন কোকোনাট ওয়েল ব্যবহার করলেই সবচেয়ে উপকারী।

আপনারা নারকেল তেলের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্যের উপকার জানলে অবাক হবেন। তাই দেরী না করে চলুন জেনে নেই –

নিউট্রিশন বা পুষ্টিমূল্য

১ টেবিল চামচ নারকেল তেল রয়েছে :

১২১ ক্যালোরি

প্রোটিন ০ গ্রাম

১৩.৫ গ্রাম ফ্যাট, যার মধ্যে ১১.২ গ্রাম স্যাচুরেটেড

0 মিলিগ্রাম কোলেস্টেরল

নারকেল তেলে ভিটামিন-ই থাকে তবে কোনও ফাইবার থাকে না।

নারকেল তেল প্রায় ১০০% ফ্যাট, যার বেশিরভাগ স্যাচুরেটেড ফ্যাট।

এবার স্বাস্থ্যের কী কী উপকারে আসে তা জেনে নিবো –

ভাল কোলেস্টেরল বাড়ায়

দুই ধরণের কোলেস্টেরল রয়েছে:
এইচডিএল বা ভাল কোলেস্টেরল, এলডিএল বা খারাপ কোলেস্টেরল। এইচডিএল এলডিএলের মাত্রা হ্রাস করতে সাহায্য করে এবং উচ্চ স্তরের এইচডিএল হৃদরোগের অসুস্থতা ঠিক করে তুলতে সাহায্য করে। কিছু গবেষক যুক্তি দিয়ে প্রমাণ করেছিলেন যে, নারকেল তেলের একটি উপাদান মাঝারি-চেইন ট্রাইগ্লিসারাইডস (এমসিটি) ভাল কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।তাই পরিমিতো নারকেল তেল খেতেই পারেন।

 নারিকেল তেলের পুষ্টিগুণ

ওজন কমাতে সাহায্য করে

জার্নাল লিপিডসের প্রমাণ থেকে প্রমাণিত হয় যে, নারকেল পেটের অদৃশ্য ফ্যাট পোড়াতে ও ওজন হ্রাসে সহায়তা করে। এছাড়াও নারকেল তেল হজম করা সহজ এবং থাইরয়েড এবং এন্ডোক্রাইনকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে সাহায্য করে। ইউনিভার্সিটি সানস মালয়েশিয়াতে করা গবেষণা বলে যে, নারকেল তেল স্থূল লোকদের ওজন হ্রাস করতে সহায়তা করে।

স্ট্রেস কমায়

পিউর ভার্জিন নারকেল তেল অ্যারোমাথেরাপির বাহক হিসাবে ব্যবহৃত যা মানসিক চাপ হ্রাস করে। আর তাই স্ট্রেস কমাতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বিশিষ্ট নারিকেল তেল গ্রহণ করুন।

আলঝাইমার রোগের চিকিৎসা করে

সাম্প্রতিক একটি গবেষণা সুপারিশ করেছে যে, নারকেল তেল খাওয়ার ফলে আলঝাইমার রোগীদের স্মৃতিশক্তির দক্ষতা বৃদ্ধি পেয়েছে। নারকেল তেলে উপস্থিত এমসিটি স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর সাথে সরাসরি যুক্ত।

হজমে উন্নতি করে

নারকেল তেলে প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিডের মধ্যে লরিক অ্যাসিড ও মনোলিউরিনের শক্তিশালী অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল, অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল এবং অ্যান্টিভাইরাল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এই বৈশিষ্ট্যের কারণে হজমে সমস্যা করে এমন ব্যাকটিরিয়া, ছত্রাক এবং পরজীবীদের ধংস্ব করতে সাহায্য করে। ফলে হজমে কারো সমস্যা থাকলে তা নির্মূল হয়।

হাড়কে ভালো রাখে

নারকেল তেল দেহের হাড়ের বিকাশের জন্য প্রয়োজনীয় ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম সহ গুরুত্বপূর্ণ খনিজ উপাদানের শোষণ ক্ষমতা বাড়ায়। সুতরাং এটি ৪০ বছরের বয়সের পরে মহিলাদের অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি এড়াতে খুব দরকারী।

মৃগী রোগের চিকিৎসা করে

বেশ কয়েকটি গবেষণার অনুসন্ধানে উঠে এসেছে যে, নারকেল তেলের এমসিটি মৃগীরোগের চিকিৎসার জন্য ব্যবহৃত হয়। নারকেল তেলে এমসিটিগুলির সার্থকতা হচ্ছে খিঁচুনি এবং মৃগী থেকে মুক্তি দেওয়ার অংশ হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

লিভারকে ভালো রাখে

২০১৮ সালের একটি গবেষণায় দেখা গেছে, সমীক্ষায় যারা নারকেল তেল গ্রহণ করেছেন তাদের লিভারের স্বাস্থ্যে অনেক ভালো ছিলো অন্যদের তুলনায়। প্রমানিতো হয়েছে যে, নারকেল তেল লিভারের যে কোনও ক্ষয়ক্ষতি থেকেও রক্ষা করে এবং সেই সাথে মূত্রনালীর ইনফেকশন ভালো করতে সাহায্য করে।ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণ এবং ডায়াবেটিসের জন্য ভাল নারকেল তেল দেহে স্থূলত্বের মাত্রা হ্রাস করতে সহায়তা করে এবং ইনসুলিন প্রতিরোধের বিরুদ্ধেও লড়াই করে – এমন সমস্যাগুলি যা টাইপ টু ডায়াবেটিসের কারণ হতে পারে। সেক্ষেত্রে নারকেল তেল কতো বড়ো একটি কাজ করছে তা বুঝতেই পারছেন। শক্তি বৃদ্ধি করতে নারকেল তেল প্রতিদিন খেলে তা শরীরের শক্তি বৃদ্ধি করে। তবে রান্নায় বিশুদ্ধ নারকেল তেল ব্যবহার করতে হবে যেটাকে আমরা বলি ভার্জিন কোকোনাট ওয়েল।

ব্যথা প্রশমিত করতে

জয়েন্টের ব্যথা কিংবা হাঁটু ব্যথাতে কুসুম গরম নারকেল তেল ম্যাসাজ করুন। এটি ব্যথা কমাতে সাহায্য করবে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

নারকেল তেলের এই পুষ্টিগুণের কথা হয়তো অনেকেই হয়তো জানেন না। প্রতিদিন অল্পমাত্রায় নারকেল তেল খেলে আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়তে পারে। আর ইস্ট, ফাঙ্গাস এবং ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া দমনে দারুণ উপকারী নারকেল তেল। সামনে শীত আসছে সাথে করোনা। এই সময়ে নারকেল তেল খাওয়ার মতো ভালো সাজেশন আর কী হতে পারে বলুন।

প্রতিদিন কতটুকু নারকেল তেল?

গবেষণায় দেখা গেছে যে, ২ টেবিল চামচ (৩০মিলি) একটি কার্যকর ডোজ বলে মনে হয়। এটি ওজনে উপকার করতে, পেটের মেদ কমাতে এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য চিহ্নিতকারীগুলিকে উন্নত করতে দেখানো হয়েছে। আবার কিছু গবেষণায় ক্যালরি খাওয়ার উপর নির্ভর করে প্রতিদিন ২.৫ টেবিল চামচ (৩৯ মিলিগ্রাম) পর্যন্ত ব্যবহার করা হয়।তবে যতো যাই বলেন না কেনো?আপনার পরিবার ও আপনার ব্যবহারের পরিমাণ বিভিন্ন প্রক্ষাপটের উপর নির্ভর করে। একজন ডায়েটিশিয়ানই কিন্তু পারেন এর সঠিক পরিমান জানিয়ে দিতে। কারণ, আমাদের দেশে একেকটি পরিবার একেকরকম। নিশ্চয়ই সবাই আলাদা আলাদা রান্না করেন না। তাই এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞের মতামত জেনে নিবেন।

অনেকের মনেই প্রশ্ন আসবে নারকেল তেল কীভাবে খাবে?

***ভার্জিন কোকোনাট ওয়েল খাওয়ার জন্য সবচেয়ে ভালো।

কোন কোন জায়গায় কীভাবে নারকেল তেল ব্যবহার করবেন –

রান্নার জন্য ব্যবহার

নারকেল তেল রান্নার জন্য আদর্শ কারণ এর প্রায় ৯০% ফ্যাটি অ্যাসিডগুলি স্যাচুরেটেড হয়, এটি উচ্চ তাপমাত্রায় অত্যন্ত স্থিতিশীল করে তোলে। নারকেল তেল ঘরের তাপমাত্রায় অর্ধ-কঠিন এবং ৭৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট (২৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড) গলে যায়।তাই এটিকে নমনীয় রাখার জন্য এটি রেফ্রিজারেটরের চেয়ে আলমারিতে রেখে দিন।

কষানো বা ভাজা

শাকসবজি, ডিম, মাংস বা মাছ রান্না করতে এই তেলটির ১-২ টেবিল চামচ ব্যবহার করুন।

পপকর্ন

এয়ার-পপড পপকর্নে নারকেল তেল গলিয়ে নিন। তারপর নিজেদের মতো পপকর্ন রেসিপি চেষ্টা করে দেখুন।

বেকিং

পোল্ট্রি বা মাংসের উপরে এটি ব্যবহার করুন। তারপর বেকিং এ দিয়ে দিলেন।

এমনকি চা কফিতেও নারকেল তেল ব্যবহার করতে পারবেন।

কী নিজের দেশের এমন জিনিসের গুণাগুণ শুনতে ভালো লাগছেনা? জানি আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে। তাই দেরী না করে আজ থেকে শুরু করে দিতে পারেন নারকেল তেলের ব্যবহার। পরের পর্বে চোখ রাখুন। ফিরে আসবো কোনো চমক নিয়ে। সেই পর্যন্ত সুস্থ থাকুন।

লেখক
পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা
কনসালটেন্ট ডায়েটিশিয়ান
ইবনেসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও কেয়ার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
www.facebook.com/DietitianMunira

  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

পর্যাপ্ত ঘুমের জন্য ডিনারে যে খাবার গুলি গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকবেন


.

নুডুল্ স এর ভাল-মন্দ


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

চর্বি জাতীয় খাবার মানেই খারাপ কিছু নয়- দেখুন কিছু স্বাস্থ‌্যকর দরকারী বাঙালি চর্বি জাতীয় খাবার


রয়াল বাংলা ডেস্ক
.

ফুড সাপ্লিমেন্ট কি ? কেন নেবেন?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আপনি জানেন কী কেন প্রতিদিন দুধ খাওয়া উচিত ? জেনে নিন


ডায়েটিশিয়ান সিরাজাম মুনিরা
.

চুল পড়া রোধে কী করবেন ? এবং কী খাবেন?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আলু খেলে কি মোটা হয় ?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

দীর্ঘদিন ধরে পেট খারাপ বা আইবিএস হলে কী করবেন


ডায়েটিশিয়ান সিরাজাম মুনিরা
.

আপনি কি নিজের অজান্তে আয়রন এর অভাবে ভুগছেন ?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আপনি জানেন কি কফি কেন , কিভাবে এবং কখন খাওয়া প্রয়োজন ?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী
.

আপনি কি সারাক্ষণ ক্লান্ত বোধ করেন?


পুষ্টিবিদ জয়তী মুখার্জী

বুক জ্বালাপোড়া বা এসিডিটিঃ

ডা. মুহম্মদ মুহিদুল ইসলাম,সায়েন্টিফিক অফিসার
বুক জ্বালাপোড়া বা এসিডিটি,একটি কমন সমস্যা।আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষই কম বেশি এই সমস্যায় আক্রান্ত। মেডিক্যাল এর ভাষায় একে বলে GERD অথবা Gastro Esophageal Reflux Disease........
বিস্তারিত

হোটেল বা রেস্টুরেন্টে কতটা খাওয়া উচিত?

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু
ডায়েটিশিয়ান হিসেবে আমি রেস্টুরেন্ট কিংবা বাইরে খাবার খাওয়ার বিষয়টাকে বরাবরই নিরুৎসাহিত করি কারণ রেস্টুরেন্টের খাবার অতিরিক্ত ক্যালরিবহুল হয় যেটা গ্রহণের ফলে দৈনিক প্রয়োজনীয় ক্যালরি থেকে...
বিস্তারিত

ফুলকপির পুষ্টিগুণ

পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা,কনসালটেন্ট ডায়েটিশিয়ান
চলছে শীতকাল। তার মধ্যে করোনা। সাবধান থাকা আবশ্যক। তার সাথে এই শীতকালীন সবজির দিকে যাওয়াটাও আবশ্যক। আজ আমি খুবই সুস্বাদু পরিচিতো একটি সবজি নিয়ে আলোচনা করবো।.....
বিস্তারিত

খাবারের পুষ্টিগুণ নিশ্চিত করতে কেমন রান্না করা উচিত ?

নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)
আপনি বাজার করলেন বেছে বেছে, সেরা সবজি কিনলেন। ধোয়া ধুয়ি সব নিয়ম মাফিক হলো কিন্তু রান্নায় কিছু ভুল হওয়াতে হারিয়ে ফেলতে পারেন দাম দিয়ে কেনা আপনার ভিটামিন সি, বি,বি১২ সহ আরও মিনারেলস গুলো।.....
বিস্তারিত

কিভাবে বুঝবেন আপনি illness Anxiety/ Health Anxiey disorder বা অসুস্থতাজনিত উদ্বেগ রোগে আক্রান্ত??


জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট,বি-এস.সি (অনার্স), সাইকোলজি

অকাল গর্ভপাতের ৬ কারণ


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

বাচ্চাদের ফল ও সবজি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলবেন কিভাবে?


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন।বিএসসি (সম্মান), এমএসসি (প্রথম শ্রেণী) (ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি)

মহিলাদের ইনফার্টিলিটি দূর করার ক্ষেত্রে ডিম্বাণুর গুণাগুণ কেন গুরুত্বপূর্ণ?


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

কিডনী সিস্ট কতটা ঝুঁকিপূর্ণ ?


ডাঃ মোহাম্মদ ইব্রাহিম আলী,এম.বি.এস,বিসিএস (স্বাস্থ্য) ,এমএস (ইউরোলজি)

শিশুদের ডায়েট কেমন হওয়া উচিত ?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)