Royalbangla
পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা
পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা

নবজাতক ও মায়েদের সুস্থতার জন‌্য বুকের দুধ খাওয়ানোর গুরুত্ব

মাতৃদুগ্ধ


  1. মাতৃদুগ্ধ পানের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। প্রত্যেক বাচ্চাকে জন্মানোর পর প্রথম ছয় মাস মায়ের বুকের দুধ ছাড়া অন্য কোন কিছু দেওয়া উচিত নয়। একে বলে এক্সক্লুসিভ ব্রেস্ট ফিডিং (Exclusive Breast feeding)। এই এক্সক্লুসিভ ব্রেস্ট ফিডিং বাচ্চার শারীরিক বিকাশ ঘটাবে, ওজন বাড়াবে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলবে।
    বাচ্চা জন্মানোর পর প্রথম দুদিন পর্যন্ত মায়েদের বুক থেকে হলুদ রঙের গাঢ় এক ধরনের দুধ বের হয় একে বলে কলোস্ট্রাম (Colostrum)। বাচ্চাকে কলোস্ট্রাম খাওয়ানো অত্যাবশ‍্যক কারণ এর মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণে:
    প্রোটিন
    ফ্যাট
    কার্বোহাইড্রেট
    ভিটামিন
    মিনারেলস
    অ্যান্টিবডি
    যেগুলি বিভিন্ন ধরনের রোগ প্রতিরোধ করার জন্য প্রয়োজনীয়। অনেকেই কলোস্ট্রাম বাচ্চার পক্ষে ক্ষতিকারক ভেবে ফেলে দেয় কিন্তু সেটি অনুচিত। একজন মা দিনে প্রায় ৭৫০ মিলি লিটার দুধ উৎপাদন করেন এবং প্রতি ১০০ মিলিলিটার দুধ থেকে বাচ্চা প্রায় ৬৫ ক্যালোরি পর্যন্ত শক্তি অর্জন করতে পারে।
    কেনো বুকের দুধ পান করানো ওয়াজিব অর্থাৎ অত্যাবশ্যক আসুন তা সংক্ষেপে আলোচনা করে আপনাদের জানিয়ে দেই

  2. এক
    নানা রোগের ঝুঁকি হ্রাস করতে পারে
  3. দুই
    Middle ear infection
    ৩ বা ততোধিক মাস ধরে দুধ পান করালে এই রোগের ঝুঁকি ৫০% কমাতে সক্ষম।
  4. তিন
    শ্বাস নালীর সংক্রমণ
    ৪ মাসেরও বেশি সময় ধরে এক্সক্লুসিভ বুকের দুধ খাওয়ানো এই সংক্রমণের জন্য হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি ৭২% হ্রাস করে।
  5. চার
    সর্দি সংক্রমণ
    ৬ মাস ধরে বুকের দুধ খাওয়ানো শিশুদের মধ্যে গুরুতর সর্দি ও ভাইরাল ইনফেকশন কানে বা গলাতে সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি ৬৩% কমে যায়।
  6. পাঁচ
    অন্ত্রে সংক্রমণ
    স্তন্যপান করানো অন্ত্রে সংক্রমণের ৬৪% হ্রাস হয়।
  7. ছয়
    হঠাৎ শিশুমৃত্যু
    স্তন্যপান করানোর ১ মাস পরে এ ঝুঁকি ৫০% হ্রাস হয় এবং প্রথম বছর দুধ পান করানোর পরে ৩৬% ঝুঁকি হ্রাস হয়।
  8. সাত
    অ্যালার্জিক রোগ
    কমপক্ষে ৩-৪ মাস ধরে এক্সক্লুসিভ বুকের দুধ খাওয়ানো হাঁপানি, অ্যাটোপিক ডার্মাটাইটিস এবং একজিমার ২৭-৪২% ঝুঁকি হ্রাস করে।
  9. আট
    সিলিয়াক ডিজিজ
    বুকের দুধ খাওয়ানো বাচ্চাদের সিলিয়াক ডিজিজ হওয়ার ঝুঁকি ৫২% কম থাকে।
  10. নয়
    পেটের রোগ থেকে মুক্তি
    বুকের দুধ খাওয়ানো বাচ্চাদের শৈশব প্রদাহজনক পেটের রোগ হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় ৩০% কম হতে পারে।
  11. দশ
    ডায়াবেটিস
    কমপক্ষে ৩ মাস ধরে বুকের দুধ খাওয়ানো টাইপ ১ ডায়াবেটিসের ঝুঁকির হ্রাস ৩০% এর উপরে এবং টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাস ৪০% এর উপরে।
  12. এগার
    শিশুর লিউকিমিয়া
    ৬ মাস বা তারও বেশি সময় ধরে বুকের দুধ খাওয়ানো শৈশব লিউকিমিয়ার ঝুঁকিতে ১৫-২২% ঝুঁকি হ্রাস হয়।
  13. বার
    বুকের দুধ খাওয়ানো শিশুরা স্মার্ট ও বুদ্ধি প্রখর হয়
    কিছু গবেষণা পরামর্শ দেয় যে বুকের দুধ খাওয়ানো এবং ফর্মুলা খাওয়ানো বাচ্চাদের মধ্যে মস্তিষ্কের বিকাশ অন্যদের তুলনায় অনেক বেশি হয়।
    অধ্যয়নগুলি ইঙ্গিত দেয় যে বুকের দুধ খাওয়ানো বাচ্চাদের বুদ্ধি স্কোর বেশি থাকে এবং তাদের বড় হওয়ার সাথে সাথে আচরণ এবং শেখার ক্ষেত্রে যেকোনো বাঁধা ও সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা কম হয় এবং নানা গবেষণা পরিষ্কারভাবে দেখায় যে বুকের দুধ খাওয়ানো তাদের দীর্ঘমেয়াদী মস্তিষ্কের বিকাশের উপর উল্লেখযোগ্য ইতিবাচক প্রভাব ফেলে।
    এছাড়াও


  14. ডায়রিয়া, অ্যালার্জি, নিউমোনিয়া এবং অপুষ্টিজনিত সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা হ্রাস করার অন্যতম সেরা উপায়।

  15. বুকের দুধ খাওয়ালে মায়েদের স্তন এবং ডিম্বাশয়ের ক্যান্সারের ঝুঁকি কম থাকে।

  16. অর্থনৈতিক দূরাবস্থা দূরীকরণে এটি পরিপূরক কারণ ব্যয়বহুল সরঞ্জাম ক্রয়ের প্রয়োজনীয়তা হ্রাস করে।

  17. বুকের দুধে কোলস্ট্রাম পেট পরিষ্কার করে এবং ওষুধের প্রয়োজনীয়তা দূর করে।

  18. প্রসবের পরে নতুন মায়ের ওজন হ্রাস করতে সহায়তা করে।

  19. একটি শিশু যত বেশি দুধ পান করে তত বেশি দুধ তৈরি হয়, এই প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া মা ও শিশুর ২ জনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় পুষ্টির অভাব মেটাতে।
    আপনাদের ধারণা এতোক্ষণে পরিষ্কার হয়ে যাওয়ার কথা, তাই বুকের দুধ পান নিয়ে কোনো হেলাফেলা ও অবহেলা নয়।
    এবার ব্রেস্ট ফিডিং কতোবার ও কতো সময় ধরে করাবেন তা জেনে নেয়া অপরিহার্য।আমি এ ব্যাপারে ছাড় দিতে পারিনা।তাই চলুন কষ্ট করে আরেকটু পড়ে নেই
  20. এক
    যেহেতু বাচ্চাকে কেবল মায়ের দুধ দেওয়া হয়,তাই খাওয়ানোর ফ্রিকোয়েন্সি নির্ভর করে শিশুর চাহিদা অনুযায়ী। এর অর্থ হল আপনি আপনার বাচ্চাকে দিনে কমপক্ষে ৮ থেকে ১২ বার বুকের দুধ খাওয়ান।
  21. দুই
    রাতের বেলা স্তন্যপান করাবেন অবশ্যই এবং সাবধানও থাকবেন যাতে আপনি ঘুমিয়ে না যান।
  22. তিন
    স্তন্যপান করানোর সময়কাল শিশুর প্রয়োজনের উপর নির্ভর করে। প্রতিটি সেশন ২০-৪৫ মিনিটের মধ্যে থাকতে পারে।
  23. চার
    এক স্তন থেকে অন্য স্তনে যাওয়ার আগে শিশুর খাওয়ার সন্তুষ্টি হতে হবে। এ ব্যাপারে লক্ষ্য রাখবেন।
    কিছু টিপস
    শিশুর জন্মের এক ঘন্টার মধ্যে স্তন্যপান করানো শুরু করা উচিত। ৬মাস ধরে এক্সক্লুসিভ বুকের দুধ খাওয়াতে হবে এবং তখন বাচ্চাকে কেবল মায়ের দুধ দিতে হবে অন্য কিছু নয়।এমনকি পানিও দেওয়া উচিত নয়।
    শিশু যখন খেতে চাইবে তখনই স্তন্যপান করানো উচিত।
    কৃত্রিম স্তনবৃন্ত ইত্যাদি ব্যবহার করবেন না।
    কর্মরত মায়েরা ব্রেস্ট পাম্পে দুধ খুবই সাবধানে ও পরিষ্কারভাবে সমরক্ষণ করবেন।
    WHO সুপারিশ করে যে
    শিশুর সর্বোত্তম বৃদ্ধি, বিকাশ এবং স্বাস্থ্য অর্জনের জন্য জীবনের প্রথম ছয় মাস বুকের দুধ খাওয়াতে হবে। তারপরে, তাদের বিকশিত পুষ্টির প্রয়োজনীয়তাগুলি পূরণ করার জন্য, দুবছর বা তারও বেশি সময় ধরে বুকের দুধ খাওয়ানো অব্যাহত রেখে শিশুদের পুষ্টি পর্যাপ্ত এবং নিরাপদ পরিপূরক খাবার গ্রহণ করাতে হবে।
    লেখক
    পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা
    কনসালটেন্ট ডায়েটিশিয়ান
    ইবনেসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও কেয়ার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
  1. royalbangla.com এ আপনার লেখা বা মতামত বা পরামর্শ পাঠাতে পারেন এই এ‌্যড্রেসে royal_bangla@yahoo.com
পরবর্তী পোস্ট

খিচুড়ী কি আসলেই পুষ্টিকর খাবার??


.

দ্রুত গর্ভবতী হওয়ার উপায়


রয়াল বাংলা ডেস্ক
.

পুরুষের বন্ধ্যাত্বের সমস্যা কেন বাড়ছে ?


ডাঃ আয়েশা রাইসুল
.

মেয়েরাই কেন অস্টিওপোরেসিস এ বেশি আক্রান্ত হন?


Nutritionist Iqbal Hossain
.

প্রেগন্যান্সি জার্নি


নিউট্রিশনিস্ট ইকবাল হোসেন
.

নবজাতক ও মায়েদের সুস্থতার জন‌্য বুকের দুধ খাওয়ানোর গুরুত্ব


পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা
.

প্রেগন্যন্সিতে বর্জনীয় খাবার অর্থাৎ যে খাবার গুলো গর্ভস্থ শিশুর জন্য বর্জন করতে হবে


নিউট্রিশনিস্ট সাদিয়া স্মৃতি
.

গর্ভকালীন কোষ্ঠকাঠিন্য


Dr Md Ashek Mahmud Ferdaus
.

বাচ্চাকে আত্মবিশ্বাসী করে তোলার কিছু টিপস


নুসরাত জাহান, ডায়েট কনসালটেন্ট
.

সুস্থ সুন্দর সন্তান জম্মদানের জন্য আপনার করণীয়


ডাঃ আয়েশা রাইসুল
.

নরমাল ডেলিভারি না সিজার করাবেন?


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা)
.

ফিটাল প্রেজেন্টেশন ও নরমাল ডেলিভারি।


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা)
.

ব্রেস্ট ফিডিং কেন করাবেন?


পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা
.

গর্ভপাত (Miscarriage/abortion)


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা)
.

ব্রেস্ট ফিডিং মায়েদের ডায়েট কেমন হওয়া উচিত?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)
.

থ্রেটেন্ড গর্ভপাত (Threatened abortion)


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,Consultant Sonologist

মাড়ির পাথর, প্রদাহ এবং মাড়ি থেকে রক্ত পড়া।

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
অফিস, বাসা সব সামলে নিজের জন্য ভাবার, সময় দেয়ার সময় হয়ে ওঠে না। দাঁত ও মুখের যত্ন বলতে দিনে দুইবার ব্রাশ করা তাও প্রায়ই রাতের ব্রাশ মিস হয়ে যায়। দাঁতগুলো ইদানিং একটু কালচে কালচে লাগে তার পরও সমস্যা তো হচ্ছে না,...
বিস্তারিত

পজিটিভ ব্যক্তিত্ব

জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
একজন পজিটিভ মানসিকতা সম্পন্ন ব্যক্তি শারীরিক ও মানসিকভাবে স্বাস্থ্যবান থাকেন। অন্যান্ন ব্যক্তির নিকট এসব ব্যক্তির গ্রহণ যোগ্যতা অনেক বেশি। কতগুলো গুনাবলি চর্চা করতে পারলে আপনিও পজিটিভ মানসিকতা সম্পন্ন ব্যক্তি হতে পারেন।....
বিস্তারিত

এবফ্রাকসান কী ??

ডা: এস.এম.ছাদিক,ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারী
আপনার মাড়ির মধ্যে খাবার জমে থাকে বা আপনি যখন হাসি দেন অথবা আপনি আপনার জিহবা দিয়ে নাড়াচড়া করলে অনুভব করতে পারেন।....
বিস্তারিত

ব্র‍্যাক্সটন-হিক্স সংকোচন (Braxton-Hicks contractions) অথবা ফলস লেবার পেইন (False labour pain)।

ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা),Consultant Sonologist
ব্র্যাক্সটন-হিক্স সংকোচন- ফলস প্রসব বেদনা নামে অনেকের কাছে পরিচিত। এটি একধরনের জরায়ুর সংকোচন যা সাধারণত গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় বা তৃতীয় ত্রৈমাসিকের আগ পর্যন্ত অনুভূত হয় না।......
বিস্তারিত

হার্টের জন্য উপকারী টমেটো !!!

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
টমেটো অনেকের কাছে অনেক মজাদার ও প্রিয় একটি ফল। কাঁচা, পাকা, রান্না করে বা রান্না ছাড়া যেকোনো ভাবে আমরা অনেক মজার সাথে এই ফল খেতে পারি। .....
বিস্তারিত

কিভাবে সমালোচনা সহ্য করবেন?

জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
সাধারণত যে কোন মানুষের জন্য সমালোচনা সহ্য করা কঠিন। তবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমাদের সমালোচনা সম্মুখীন হওয়া খুবই স্বাভাবিক বিষয়।....
বিস্তারিত

বাধাকপি

পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন,পুষ্টি কর্মকর্তা
বাধাকপি একটি সুস্বাদু শীতকালীন সবজি। আমাদের দেশের ঘরে ঘরে একটি জনপ্রিয় খাবার এই বাধাকপি। এটি কাঁচা এবং রান্না দুইভাবেই খাওয়া যায়।........
বিস্তারিত

ডিপ্রেশন একটা মানসিক রোগ

জিয়ানুর কবির,ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিষ্ট
করোনা পরবর্তী সময়ের অন্যতম একটা মানসিক রোগ ডিপ্রেশন। ডিপ্রেশন কোন অভাববোধ থেকে নাও হতে পারে। সবকিছু থাকার পরেও অনেকের ডিপ্রেশন হতে পারে। ২ সপ্তাহ বা তার বেশি সময় এই লক্ষণগুলির মধ্যে কমপক্ষে ....
বিস্তারিত

Stop bullying plz - ফেসবুকে বাজে কমেন্টস এবং বাস্তব জীবনে মানুষকে হেয় করে গাল-মন্দ করা বন্ধ করুন

নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী,Bsc (Hon's) Msc (food & Nutrition)
মানুষ সব কিছু তেই সেরা খুজে! বাজারের সেরা মাছ, আড়তের সেরা চাল, খাটি গরুর দুধ, দেশী তাজা মুরগীর ডিম, ক্ষেতের সদ্য তোলা আলু, সুন্দরী বউ, টাকাওয়ালা ছেলে, খ্যাতিমান ডাক্তার।......
বিস্তারিত

গর্ভবতী মায়ের হৃদরোগ

ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)
অনেকে উচ্চ রক্তচাপে ভুগে থাকেন। তাদের অবশ্যই গর্ভকালীন চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে থাকতে হবে। যাদের হার্ট অ্যাটাক বা অন্য কোনো ইসকেমিক হার্ট ডিজিজের ইতিহাস আছে, তাদেরও হার্টের যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে গর্ভধারণের........
বিস্তারিত

বডি শেমিং বন্ধ করুন

পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু,নিউট্রিশনিস্ট
আমরা সবাই কমবেশি বডি শেমিং টার্মটির সাথে পরিচিত। খুব অবাক হই তাদের কথা ভেবে যারা অন্যদের সাথে এমন করেন - তুমি খুব মোটা ওজন কমাও না কেন??........
বিস্তারিত

মানসিক সাস্থ্য কিভাবে ভাল রাখবো???

ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন,হৃদরোগ, বাতজ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ রোগ বিশেষজ্ঞ
মানসিকভাবে ভালো থাকতে শারীরিকভাবে সুস্থ থাকাটাও জরুরি। শরীরকে সক্রিয় রাখতে সামর্থ্য অনুযায়ী ব্যায়াম করুন। ব্যায়াম করলে সুখ হরমোন নিঃসৃত হয়। মানসিকভাবে হালকা বোধ করতে বা মন ভালো রাখতে নিয়মিত ব্যায়ামের চর্চা করে যান।......
বিস্তারিত

লিম্ফোমাঃ রক্তের বিশেষ একপ্রকারের ক্যান্সার


ডাঃ গুলজার হোসেন ,বিশেষজ্ঞ হেমাটোলজিস্ট

ব্যস্ত জীবনে সুস্থ থাকতে ছোট ছোট পরিবর্তন আনুন


পুষ্টিবিদ মুনিয়া মৌরিন মুমু

ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে যে পদক্ষেপটি সবার জন্য জরুরি


ডাঃ লায়লা শিরিন

কেন হাঁটবেন? কিভাবে হাঁটবেন ? কতটুকু হাঁটবেন?


ডা: অনির্বাণ মোদক পূজন।হৃদরোগ, বাতজ্বর ও উচ্চ রক্তচাপ রোগ বিশেষজ্ঞ

রুট ক্যানাল ( দাতেঁর ব্যথার) চিকিৎসা কি? কখন করাতে হয়?


ডা: এস.এম.ছাদিক,বি ডি এস (ডি ইউ),এম পি এইচ (অন কোর্স)

প্রেগ্ন্যান্সিতে 3D/4D আল্ট্রাসনোগ্রাম কখন কেন করাবেন।


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা) ,,Consultant Sonologist

ভিটামিন ই কেন খাব? কোথায় পাব?


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন।বিএসসি (সম্মান), এমএসসি (প্রথম শ্রেণী) (ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি)

জরুরি জন্মনিরোধক পিল ব্যবহারে সচেতন থাকুন


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী,এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য),এমএস (অবস এন্ড গাইনী)

অনিয়মিত পিরিয়ডের কারণ , চিকিৎসা ও ঘরোয়া প্রতিকার


ডাঃ হাসনা হোসেন আখী

আসুন থ্যালাসেমিয়াকে জানি


ডাঃ গুলজার হোসেন

মুরগীর কলিজা কি সত্যিই বিষাক্ত?


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন।

অনিদ্রার ব্যবস্থাপনা


জিয়ানুর কবির

মলদ্বারের যত রোগ


ডাঃ মোঃ মাজেদুল ইসলাম

পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিন্ড্রোম (PCOS) ও এর প্রভাব।


ডাঃ সরওয়াত আফরিনা আক্তার (রুমা)

শিশুদের জন্য ব্যায়াম কখন প্রয়োজন?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী

স্তনের চাকা এবং ক্যান্সার আতংক


ডাঃ লায়লা শিরিন,সহযোগী অধ্যাপক, ক্যান্সার সার্জারী, জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইন্সটিটিউট ও হাসপাতাল

তিতা করলার স্বাস্থ্য উপকারিতা


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন

গ্যাসের সমস্যা ওষুধ খেয়ে না কমিয়ে প্রাকৃতিক উপায়ে কমান


ডায়েট কনসালটেন্ট নুসরাত জাহান

প্রবীণদের আক্রমণাত্মক আচরণ: পরিবারের সদস্যদের করণীয়


ডা. ফাতেমা জোহরা

পাইলস ও ফিসার : ধারণা ও সতর্কতা


ডাঃ মোঃ আশেক মাহমুদ ফেরদৌস

মানসিক সেবাপ্রদানকারী কি সঠিক ডিগ্রীধারী??


জিয়ানুর কবির

রোজা রেখে আমি কখন হাটতে পারবো?


নিউট্রিশনিস্ট সুমাইয়া সিরাজী

কেন হাসবো??


পুষ্টিবিদ মোঃ ইকবাল হোসেন

সহমর্মিতামূলক প্যারেন্টিং (Empathetic parenting)


জিয়ানুর কবির